বাংলাদেশী বিজ্ঞানী ড. আবেদের ক্যান্সার প্রতিরোধক ‘রঙিন ভুট্টা’


Published: 2019-01-21 08:40:10 BdST, Updated: 2019-08-19 00:02:10 BdST

মৌলভীবাজার লাইভ : বাংলাদেশী সফল বিজ্ঞানী ড. আবেদ চৌধুরী এবার উদ্ভাবন করেছেন ক্যান্সার প্রতিরোধক ‘রঙিন ভুট্টা’। তিনি মৌলভীবাজারের কুলাউড়ার বাসিন্দা। বর্তমানে অস্ট্রেলিয়ায় থাকলেও এবার দেশে এসে কৃষি ক্ষেত্রে উন্নয়নে ভূমিকা রাখবেন বলে প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন তিনি।

বিজ্ঞানী ড. আবেদ চৌধুরী বলেন, ধান ও গমের তুলনায ভুট্টার পুষ্টিমান বেশি। এটিকে নিউ নিউট্রেশন বলা যেতে পারে। ভুট্টায় কেরোটিন থাকার কারণে মুলত এর রং হলুদ হয়। তাই তিনি রঙিন ভুট্টার ক্লোন উদ্ভাবন করেন। একত্রে সবরঙের ভুট্রাসহ আলাদা আলাদা রঙের ভুট্টা উদ্ভাবন করেন। রঙিন ভুট্টা ক্যান্সার প্রতিরোধক বলে জানান ড. আবেদ চৌধুরী। বিশেষ করে শিশুদের কাছে এই ভুট্টা ব্যাপক জনপ্রিয়তা পাবে। শিশুরা ভুট্টা খেলে তাদের দেহের পুষ্টির চাহিদা পুরণ হবে।

ড. আবেদ চৌধুরীর উদ্ভাবিত রঙিন ভুট্টা সারা বছরে ৪ বার চাষ করা যায়। আবার খরিফ-১ ও খরিফ-২ মৌসুমেও ভুট্টা চাষ করা যায়। হাইব্রিড ভুট্টা একটি পদ্ধতির মাধ্যমে বেরিয়ে আসতে পারে। বেরিয়ে আসা ভুট্টা ফলন হবে হাই ব্রিডের সমান। ফলে ভুট্টা চাষে কৃষকদের আরও উৎসাহী করা উচিত।

ড. আবেদ চৌধুরী কুলাউড়া উপজেলার ভুট্টাচাষীসহ সফল কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করতে ভুট্টার বীজ বিতরণ করেন। প্রত্যেকটি বাড়ি আশেপাশে এবং পতিত জায়গায় ভুট্টা চাষের আহবান জানান। তিনি আরও বলেন, আমি দীর্ঘদিন বিদেশে ছিলাম। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সেবা দিয়েছি। এবার সেই সেবা নিজের দেশকে দিতে চাই। বিশেষ করে কুলাউড়ার কৃষি বিভাগকে এগিয়ে নিতে আলাদা সময় দেবেন বলে জানান। ফলে পরীক্ষামুলকভাবে ভুট্টা চাষ শুরু করা হোক।

ড. আবেদ চৌধুরী কৃষি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, আমাদের দেশে বিজ্ঞানের কারণে কৃষির উৎপাদন বেড়েছে। কিন্তু উদ্বেগের বিষয় হলো যেভাবে জমির উর্বরা অংশ ইটভাটায় নেয়া হচ্ছে, মিল ফ্যাক্টরি করে ধানী জমিকে ধ্বংস এবং নগরায়ন করা হচ্ছে তাতে কৃষি বিভাগ আগামীতে হুমকির মুখে পড়বে। কৃষিকে নিয়ে নতুন করে ভাবতে হবে, সেই সাথে নতুন জাতের উদ্ভাবন করতে হবে।

কুলাউড়া উপজেলা পরিষদের আয়োজনে এবং উপজেলা চেয়ারম্যান আসম কামরুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও কৃষি অফিসার জগলুল হায়দারের সঞ্চালনায় রোববার মতবিনিময় সভায় ড. আবেদ এসব তথ্য দেন। এসময় বক্তব্য দেন শিকাগোর অনারারি কনস্যুল জেনারেল মুনির চৌধুরী, সাংবাদিক সুশীল সেনগুপ্ত, ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক মইনুল ইসলাম শামীম, প্রেসক্লাব কুলাউড়ার সভাপতি আজিজুল ইসলাম, শ্রেষ্ঠ চাষী আব্দুল জব্বার প্রমুখ।

উল্লেখ্য, ড. আবেদ চৌধুরী মৌলভীবাজার সরকারি হাইস্কুলের ছাত্র ছিলেন। পরে তিনি নটরডেম কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করেন। রসায়নে অনার্স ডিগ্রি নেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। পিএইচডি ডিগ্রি নেন University of Oregon থেকে। এছাড়া পোস্ট ডক্টোরাল গবেষণা করেন আমেরিকার National Institutes of Health এবং Massachusetts Institute of Technology থেকে। বর্তমানে তিনি অস্ট্রেলিয়ায় বসবাস করেন।

ঢাকা, ২১ জানুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।