রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে মেধায় শীর্ষ ছয়ের আরও ৩ ছাত্র ভুয়া!


Published: 2019-01-10 19:43:09 BdST, Updated: 2019-06-18 17:50:17 BdST

বেরোবি লাইভ: বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে অনার্স প্রথম বর্ষে ভর্তি পরীক্ষায় ভাইভা দিতে এসে আরও ৩ ভুয়া ছাত্র আটক হয়েছেন। তাদের সকলেরই ভর্তি বাতিল করে পুলিশের হতে সোপর্দ করা হয়েছে। আটক শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে পাবলিক পরীক্ষা আইনে মামলা করা হয়েছে। তাজহাট থানার ওসি রোকনুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আটক তিন শিক্ষার্থী হলেন, বিজ্ঞান অনুষদে ৪র্থ স্থান অধিকারী ময়মনসিংহ মুক্তাগাছার আবুল কাশেমের ছেলে মোস্তাফিজুর রহমান (ইউনিট- ডি, শিফট-২য়, রোল- ৪১৬৫২৪, মেধাক্রম ৪, রসায়ন বিভাগ), প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদের ১ম স্থান অধিকারী সিরাজগঞ্জ দেওরামারার সাইফুল ইসলামের ছেলের মাহিদুল ইসলাম মৃদুল (ইউনিট- ই, শিফট-৪র্থ, রোল- ৫১৫১৭১, মেধাক্রম ১, ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ) এবং ওই অনুষদের ৬ষ্ঠ স্থান অধিকারকারী টাঙ্গাইল বিশ্বাস বেতকার আব্দুস সোবহানের ছেলে রেজাউল করিম (ইউনিট- ই, শিফট-৪র্থ, রোল- ৫১৫১৭২, মেধাক্রম ৬, কম্পিউটার সাইন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ)। তাদের ৩ জনকেই নিজ নিজ বিভাগে ভর্তির সময় জালিয়াত শিক্ষার্থী বলে চিহ্নিত করে প্রক্টরিয়্যাল বডির কাছে তুলে দেয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর (চলতি দায়িত্ব) প্রফেসর একে.এম ফরিদ-উল ইসলাম বলেন, আটক শিক্ষার্থীদের জালিয়াতি প্রমাণ পাওয়ায় তাদের পুলশে সোপর্দ করা হয়েছে। স্বাক্ষরে অমিল এবং সাক্ষাৎকার দিতে আসা শিক্ষার্থীর সঙ্গে প্রবেশপত্রের ছবির অমিল থাকায় তাদের ভুয়া হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

 

ঢাকা, ১০ জানুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।