বেরোবি’র ভর্তি জালিয়াতির তদন্ত ৫ দিনেও শুরু হয়নি


Published: 2018-01-02 20:36:15 BdST, Updated: 2018-07-23 21:25:43 BdST

 

বেরোবি লাইভ: বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে (বেরোবি) ভর্তি জালিয়াতির সঙ্গে জড়িতদের তথ্য অনুসন্ধানের জন্য একটি তথ্যানুসন্ধান কমিটি গঠন করা হয়েছে। কিন্তু থ্যানুসন্ধান কমিটি গঠনের ৫ দিন অতিবাহিত হলেও এখন পযর্ন্তও কোন কাজ শুরু করেনি কমিটির সদস্যরা।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে গত ১৭ ডিসেম্বর ৬ শিক্ষার্থীকে আটক করে পুলিশ। ভর্তি জালিয়াতির সাথে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আটককৃতদের একজন।

এ নিয়ে ক্যাম্পাসের ভিতরে ও বাইরে তুমুল সমালোচনা শুরু হলে গত ২৮ ডিসেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ’র নির্দেশে এক অফিস আদেশের মাধ্যমে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ ইব্রাহীম কবীর।

ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর আজিজুর রহমানকে আহবায়ক, সাইবার সেন্টারের পরিচালক (চলতি দায়িত্ব) ও সহকারী প্রক্টর মুহা: শামসুজ্জামানকে সদস্য সচিব এবং ভূগোল ও পরিবেশ বিদ্যা বিভাগের অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর আতিউর রহমানকে সদস্য করে এ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

এদিকে তদন্ত কমিটি গঠনের ৫ দিন পরও তদন্ত কার্যক্রম শুরু না হওয়ায় তদন্ত কমিটির সক্ষমতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শিক্ষক বলেন, ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতির মত ঘটনা তদন্তে গঠিত কমিটিতে যাদেরকে রাখা হয়েছে তারা প্রত্যেকেই জুনিয়র শিক্ষক।

ফলে এই কমিটি তেমন শক্তিশালী হয়নি। এমন গুরুত্বপূর্ণ একটি ইস্যুতে সিনিয়র শিক্ষক বা প্রফেসর পর্যায়ের শিক্ষকদের সমন্বয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করা হলে ভালো রিপোর্ট বেরিয়ে আসত। গঠিত এই কমিটি আদৌ কোন প্রতিবেদন জমা দিতে পারবেন কি না এ নিয়ে শংকা প্রকাশ করেন এই শিক্ষক।

নাম প্রকাশে অনচ্ছুক অন্য এক শিক্ষক বলেন, ভর্তি জালিয়াতি তদন্ত একটি বড় কাজ। এ কাজে অভিজ্ঞ ও সিনিয়র শিক্ষকদের দায়িত্ব দেওয়া দরকার ছিলো। তাহলে হয়তো তাড়াতাড়ি কাজটি করা সম্ভব হতো। যে তিনজনকে নিয়ে কমিটি করা হয়েছে তারা এখন পযর্ন্ত তদন্তের কোন ধরণের কাজ শুরু করতে পারেনি, যা তাদের জন্য বড় ব্যর্থতা ।

এবিষয়ে তদন্ত কমিটির আহবায়ক ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর আজিজুর রহমান বলেন, আমরা ফরমালিভাবে মঙ্গলবার বিকাল ৩ টায় একটি মিটিং করেছি। কিন্তু ইনফরমালি অনেক বিষয় ইতোমধ্যেই আলোচনা করেছি। সঠিকভাবে তদন্তের কাজটি করতে একটু সময় লাগবে। আমরা দুই একদিনের মধ্যে তদন্তের কাজ শুরু করে দেবো। আশা করি সুষ্ঠুভাবে তদন্তের কাজ সম্পন্ন হবে।


ঢাকা, ২ জানুয়ারী (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।