জয়বাংলা ইয়ুথ এ্যওয়ার্ডে চ্যাম্পিয়ন রাবির ‘ষষ্ট ইন্দ্রিয়’


Published: 2020-11-18 13:22:23 BdST, Updated: 2020-12-02 06:41:16 BdST

রাবি লাইভঃ জয় বাংলা ইয়ুথ এ্যাওয়ার্ড এ শিশু অধিকার ক্যাটাগরিতে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ষষ্ট ইন্দ্রীয়। মঙ্গলবার রাত ৮ টায় এক ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে দেশ ও সমাজের উন্নয়নে কাজ করে যাওয়া মোট ৩০টি সংগঠনকে বিজয়ী হিসেবে ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

যৌন শিক্ষা ও যৌন হয়রানি সম্পর্কে শিশুদের মধ্যে সচেতনতা তৈরির কাজ করে ষষ্ট ইন্দ্রীয়। "নিরবতা ভেঙে আওয়াজ তুলি, সুরক্ষিত শৈশব নিশ্চিত করি।" - এই প্রতিপাদ্য সামনে রেখে বিভিন্ন যৌন নিপীড়ন থেকে নিজেদের রক্ষা ও বড় হয়ে যাতে তারা এ ধরণের কাজ থেকে নিজেকে বিরত রাখতে পারে, তেমন শিক্ষা বিস্তারে কাজ করছে সংগঠনটি।

ষষ্ট্র ইন্দ্রীয় সম্পর্কে জানা যায়, ২০১৯ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি যৌন শিক্ষা ও যৌন হয়রানি থেকে শিশুদের মধ্যে সচেতনতা তৈরি করতে চারজন যুবক মিলে এ সংগঠনটি প্রতিষ্ঠা করেন। তার মধ্যে অন্যতম রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শারিরীক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী নওরীন আমিনা। এবং এটির সহ-প্রতিষ্ঠা হিসাবে আছেন একই বিভাগের মো. রায়হানুল হক।

সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা নওরীন আমিনা বলেন, ষষ্ঠ ইন্দ্রিয় এমন একটি পরিবেশের স্বপ্ন দেখে যেখানে প্রত্যেকটি শিশু বেড়ে ওঠার জন্য নিরাপদ শৈশব পাবে এবং এই প্রজন্মের হাত ধরেই যৌন সহিংসতা ও জেন্ডার বৈষম্যমুক্ত সমাজ গড়ে উঠবে। ষষ্ঠ ইন্দ্রিয়ের মত নবীন অর্গানাইজেশনের জন্য এটা অনেক বড় সম্মান। এই অর্জন আমাদের আরও অনেক বেশি অনুপ্রাণিত করবে। মাঠপর্যায়ে কাজ করার পথটাকে আরও মসৃণ করবে।

এর আগে নারী ক্ষমতায়ন, শিশু অধিকার, বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুদের ক্ষমতায়ন, যুব উন্নয়ন, দরিদ্রদের উন্নয়ন, মাদক মুক্ত সমাজ বিনির্মাণ, করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ভূমিকা রাখা, পরিবেশ সুরক্ষা, শিক্ষা, সংস্কৃতি, নবায়নযোগ্য জ্বালানি উৎপাদনসহ আরো বেশ কিছু ক্ষেত্রে অবদানের রেখেছেন এমন ১৮ থেকে ৩৫ বছর বয়সী যুবকদের থেকে এ্যাওয়ার্ডের জন্য আবেদন চাওয়া হয় ।

আওয়ামী লীগের গবেষণা সংস্থা সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই)-এর তরুণদের প্রতিষ্ঠান ইয়াং বাংলা চতুর্থবারের মতো এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করে।

গত ২৬ অক্টোবর পুরস্কারের জন্য আবেদন শুরু হয়ে চলে গত ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত। এতে আবেদন করে দেশের প্রায় ৬০০ টি সংগঠন। এই সংগঠনগুলো থেকে বাছাই করে ৫০ সংগঠনকে রাখা হয়েছে প্রাথমিক জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড-২০২০ বিজয়ীর তালিকায়।

প্রথম পর্যায়ে এবার মোট ছয়টি সাব ক্যাটাগরিতে ‘জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড’ প্রদান করা হবে। ক্যাটাগরিগুলোর মধ্যে ছিল- নারীর ক্ষমতায়ন, শিশু অধিকার, প্রতিবন্ধীদের ক্ষমতায়ন, ক্ষতিগ্রস্ত ও পিছিয়ে পড়া মানুষের ক্ষমতায়ন, চরম দরিদ্রদের ক্ষমতায়ন ও যুব উন্নয়ন।

দ্বিতীয় পর্যায়ে সাতটি সাব ক্যাটাগরিতে অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হবে। নির্ধারিত ক্যাটাগরিগুলো হলো- মাদকবিরোধী সচেতনতা কার্যক্রম, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জরুরি কার্যক্রম, পরিবেশ এবং জলবায়ু পরিবর্তন সম্পর্কিত কার্যক্রম, স্বাস্থ্য শিক্ষা এবং সচেতনতা কার্যক্রম, সামাজিক-সাংস্কৃতিক উদ্যোগ এবং দুর্যোগ মোকাবিলা ও ঝুঁকি হ্রাস।

ডা. নুজহাত চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সিআরআই-এর ট্রাস্টি নসরুল হামিদ বিপু। ভার্চুয়াল এই অনুষ্ঠান শেষে বিজয়ীদের হাতে সার্টিফিকেট, ক্রেস্ট ও ল্যাপটপ পৌঁছে দেয়া হবে। এ ছাড়াও শীর্ষ মনোনয়ন পাওয়া সকল তরুণ সংগঠন পাবে সার্টিফিকেট বলে জানানো হয়।

ঢাকা, ১৮ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//আরআর//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।