৬৭ বছরে পদার্পণ করতে যাচ্ছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়


Published: 2020-07-05 18:07:24 BdST, Updated: 2020-08-10 13:46:49 BdST

রাশেদ রাজন, রাবিঃ ৬ জুলাই, ১৯৫৩ সালে রাজশাহীর বড়কুঠিতে মাত্র ১৬১ জন শিক্ষার্থী নিয়ে যাত্রা শুরু উত্তরাঞ্চলর প্রথম উচ্চবিদ্যাপিঠের। কালের পরিক্রমায় ৬৭ তে পা দিতে যাচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয়টি।

শুরুতে দর্শন, ইতিহাস, বাংলা, ইংরজি, অর্থনীতি, গণিত ও আইন বিষয়ে স্নাতকোত্তর কোর্স দিয়ে যাত্রা শুরু হলেও বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৯টি অনুষদের অধীনে ৫৯টি বিভাগ রয়েছে। এছাড়াও উচ্চতর গবেষণার জন্য রয়েছে ৬টি ইনস্টিটিউট।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

 

বড় কুঠির সেই বিদ্যাপিঠটির আয়তন বেড়ে এখন ৩০৩ দশমিক ৮০ হেক্টর। ১২৬০ শিক্ষক আর শিক্ষার্থীর সংখ্যা ধীর ধীর বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৮ হাজারে। অর্থাৎ সেই ১৬১ শিক্ষার্থীর বিদ্যাপিঠে পদচারনা ৩৮ হাজারের বেশি শিক্ষার্থীর।

এছাড়া বেড়েছ অবকাঠামো। ১২টি একাডমিক ভবনসহ বর্তমানে রাবির ছাত্রদের থাকার জন্য আবাসিক হল রয়েছে ১১টি ও ছাত্রীদর জন্য রয়েছে ৬টি।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

 

১৯৫৩ সালের ৩১ মার্চে প্রাদেশিক পরিষদে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন পাশ হয়। একই বছরের ৬ জুলাই ড. ইৎরাত হোসন জুবেরীকে উপাচার্য করে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়।

সেই সময় পদ্মাপাড়ের বড়কুঠি ও রাজশাহী কলেজের বিভিন্ন ভবনে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কার্যক্রম শুরু হয়। ১৯৬১ সাল বড়কুঠি থেকে মতিহারের এ সবুজ চত্বরে আসে বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

 

সুদীর্ঘ সময়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষা নিয়ে অনেক জাতীয় ও আন্তর্জাতিক অঙ্গনে অবদান রেখেছে। দীর্ঘ এ সময়ে রাবি তৈরি করেছে ভাষা বিজ্ঞানী ও সাহিত্যিক ড. মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ, কথাসাহিত্যিক হাসান আজিজুল হক, সেলিনা হাসন, ইতিহাসবিদ আব্দুল করিম, তাত্ত্বিক ও সমালোচক বদরুদ্দীন উমর, চলচিত্র পরিচালক গিয়াসউদ্দিন সেলিম প্রমুখ।

ঢাকা, ০৫ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।