রাবি ছাত্রী এ্যানিকে বাঁচাতে প্রয়োজন ১২ লাখ টাকা


Published: 2019-12-07 18:22:11 BdST, Updated: 2020-01-25 11:19:49 BdST

রাশেদ রাজন,রাবিঃ ইসরাত জাহান এ্যানি, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) চিত্রকলা, প্রাচ্যকলা ও ছাপচিত্র বিভাগে মাস্টার্সে পড়ছেন। চারুশিল্পী হিসেবেও তার বেশ পরিচিতি আছে ক্যাম্পাসে। স্বপ্ন ছিল একজন খ্যাতিসম্পন্ন চারুশিল্পী হওয়ার। কিন্তু দুইটি কিডনী নষ্ট হয়ে যাওয়াই সেই স্বপ্ন আজ মলিন হতে চলেছে। এমনটাই বলছিলেন তার সহপাঠিরা।

তার বন্ধুরা জানান, বর্তমানে এ্যানি ঢাকার শ্যামলী সিকেডি হাসপাতালের চিকিৎসাধীন রয়েছেন। দীর্ঘ ৫ বছর যাবত অসুস্থতার সাথে জীবন যুদ্ধে পার করতে হয়েছে তাকে। বাবার মৃত্যু হয়েছে অনেক আগেই তবুও এই অস্বাভাবিক পরিস্থিতির মধ্যেও ব্যাক্তিগত প্রচেষ্টায় তার এতদূর পথচলা। কিন্তু সেই পথচলা আজ অর্থাভাবে থমকে যেতে বসেছে। তার স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে চিকিৎসার জন্য প্রয়োজন প্রায় ১২ লাখ টাকা।

এদিকে এ্যানিকে বাঁচাতে চারুকলা অনুষদের শিক্ষার্থীরাও বিভিন্নভাবে অর্থ সংগ্রহে ব্যস্ত সময় পার করছেন বলে জানা গেছে। সুমন আচার্যকে সমন্বয়ক করে এই অর্থ সংগ্রহের কার্যক্রম চলছে।

সহপাঠি সুমন বলেন, দীর্ঘ ৫ বছরের অভিজ্ঞতায় অন্য আর ১০ জন বন্ধুদের চেয়ে তাকে সবসময় ব্যাতিক্রম মনে হয়। সদাহাস্যজ্জল এই মানুষটিকে দেখে কখনই মনে হয়নি সে এরকম কিডনীজনিত জটিল রোগে আক্রান্ত। কাউকে কখনো বুঝতেও দেয়নি। আমরা চাই সুস্থ্য হয়ে আবারো সেই হাস্যজ্জল মুখ নিয়ে আমাদের মাঝে ফিরে আসবে এ্যানি। এরজন্য সবার প্রতি আমার আকুল আহ্বান যার যতটুকু স্বামর্থ্য আছে সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিন।

এবিষয়ে চিত্রকলা, ‘প্রাচ্যকলা ও ছাপচিত্র বিভাগের সভাপতি প্রফেসর সুশান্ত কুমার অধীকারী বলেন, ইতিমধ্যে তার পেছনে ২০ লক্ষাধিক টাকা খরচ হয়েছে। ডাক্তাররা বলেছেন, উন্নত চিকিৎসার জন্য আরো ১০-১২ লক্ষাধিক টাকার প্রয়োজন। তার পরিবারে এখন স্বয়সম্বলহীন। এমতাবস্থায় এ্যানিকে বাঁচাতে সকলের কাছে আর্থিক সাহায্যে আবেদন জানাচ্ছি।

চারুকলা শিক্ষার্থী ইসরাত জাহান এ্যানীর চিকিৎসার জন্য টাকা পাঠানোর উপায় ডাচ-বাংলা ব্যাংক একাউন্ট নং-(১৩৫১৫১০৩৪২২০১), রকেট-০১৭৬০১০৬৩৪০৮, বিকাশ-০১৭৬০১০৬৩৪০।

সার্বিক যোগাযোগের ফোন নাম্বার-০১৭৬১০৯৯৫৯৭ (সুমন আচার্য)।

ঢাকা, ০৭ ডিসেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।