‘দুর্নীতি মুক্ত ক্যাম্পাস চাই, দুর্নীতিমুক্ত শিক্ষাঙ্গন চাই’‘দুর্নীতিমুক্ত শিক্ষাঙ্গন চাই, শিক্ষকের মর্যাদা নিয়ে বাঁচতে চাই’ রাবি শিক্ষক


Published: 2019-10-03 15:59:25 BdST, Updated: 2019-10-21 16:43:17 BdST

রাবি লাইভঃ বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগ বাণিজ্য, দুর্নীতিসহ নানা অনিয়মের অভিযোগ তুলে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ভিসি প্রফেসর এম আব্দুস সোবহান ও প্রো-ভিসি প্রফেসর চৌধুরী মো. জাকারিয়ার অপসারণের দাবিতে বিভিন্ন আন্দোলন করেছে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

এনিয়ে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ভিন্ন ভিন্ন কর্মসূচী পালন করছেন আন্দোলনকারীরা।
এর মধ্যে সকাল ১০ টায় দুর্নীতিমুক্ত শিক্ষাঙ্গনের দাবিতে অর্থনীতি বিভাগের সহযোগী প্রফেসর ড. মোহা. ফরিদ উদ্দিন খান জ্বোহা চত্বরে অবস্থান নেয়।

তিনি বেলা ১টা পর্যন্ত খালি পায়ে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে। তার হাতের প্ল্যাকার্ডে লেখা রয়েছে- দুর্নীতিমুক্ত শিক্ষাঙ্গন চাই, শিক্ষকের মর্যাদা নিয়ে বাঁচতে চাই। তবে অবস্থান কর্মসূচি নিয়ে কোনো কথা বলেননি তিনি।

এদিকে পরে ১১টায় শহীদ তাজ উদ্দিন সিনেট ভবনের সামনে ‘স্বাধীনতাবিরোধী ও দুর্নীতিবাজ প্রশাসনের অপসারণ চাই’ শিরোনামে দুর্নীতিবিরোধী শিক্ষক সমাজের আয়োজনে বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করা হয়। এতে অংশ নেয় প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের অর্ধ-শতাধিক শিক্ষকবৃন্দ।

একই দাবিতে এর আগে সাড়ে ১০টায় প্রগতিশীল ছাত্রজোট এবং বেলা ১১টায় ‘অনিয়ম ও দুর্নীতি বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীরা’ নেতাকর্মীরা কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ করেন।

ছবি: সমাবেশ এ অংশগ্রহণকারী শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা

 

এসময় “উপরে আল্লাহ নিচে আমি, কত দিতে রাজি তুমি, দুর্নীতি মুক্ত ক্যাম্পাস চাই, দুর্নীতিমুক্ত শিক্ষাঙ্গন চাই, দুর্নীতির আস্তানা ভেঙ্গে দাও গুড়িয়ে দাও, স্বজনপ্রীতির আস্তানা ভেঙ্গে দাও গুড়িয়ে দাও, এক দফা দাবি ভিসি প্রো-ভিসির পদত্যাগ দাবি, ফেস্টুনে ব্যবহার ও স্লোগান দিতে থাকেন।”

গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের প্রফেসর ড. দুলাল চন্দ্র বিশ্বাস বলেন, সাংবাদিকরা সঠিকভাবে বস্তুনিষ্ঠভাবে মতপ্রকাশ করতে পারছে না। একটা বাধা আছে, সেটা সরে গেলেই জাতির সামনে দেশের সামনে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক দুর্নীতির খবর বেরিয়ে আসবে। আমরা চাই অন্য যে দুর্নীতির খবরগুলো আছে সেগুলোও সামনে আসুক।

সাবেক লাইব্রেরী প্রশাসক প্রফেসর সফিকুন্নবী সামাদী বলেন, বর্তমান প্রশাসনের দুর্নীতির কারণে সর্বোচ্চ রেজাল্ট ৩.৮৬৯ পেয়েও শিক্ষক হতে পারে না, কিন্তু ভিসির জামাতা হওয়ার কারণে ৩.২৫ হওয়ার কারণে তাকে চাকুরিতে নিয়েছেন। একই ঘটনা প্রো-ভিসির জামাতার ক্ষেত্রেও।

এসময় ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রফেসর আলী রেজা টিপু বলেন, দুর্নীতিবাজ প্রশাসনের দুর্নীতির শিকড় এই শিক্ষাঙ্গন থেকে উপড়ে না ফেলা পর্যন্ত শিক্ষক সমাজ আন্দোলন চালিয়ে যাবে। এই যৌক্তিক দাবির আন্দোলনে শিক্ষক শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহনের আহ্বান জানান তিনি।

প্রাণ রসায়ন ও অনুপ্রাণ বিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর হাবিবুর রহমান, বাংলা বিভাগের প্রফেসর সরকার সুজিত কুমার, শামসুন নাহার, সাবেক ছাত্র উপদেষ্টা মিজানুর রহমান, সাবেক প্রক্টর প্রফেসর মুজিবুল হক আজাদ খান প্রমুখসহ অর্ধশতাধিক শিক্ষক উপস্থিত ছিলেন।

 

রাবি জাতীয়তাবাদী শিক্ষক ফোরামের বিবৃতি:
এদিকে প্রো-ভিসি প্রফেসর চৌধুরী মো. জাকারিয়ার পদত্যাগের দাবিতে রাবি জাতীয়তাবাদী শিক্ষক ফোরামের সভাপতি প্রফেসর ড. মো. হাবীবুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ড. আওরঙ্গজীব মো. আব্দুর রহমান সাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ পদত্যাগের দাবি জানান।

উল্লেখ্য, গত ২৬ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ সিনেট ভবনে ইতিহাস বিভাগ ও জন ইতিহাস চর্চা কেন্দ্র আয়োজিত তিনদিন ব্যাপী একটি আন্তর্জাতিক সম্মেলনে সভাপতির বক্তৃতায় ভিসি প্রফেসর এম আব্দুস সোবহান ‘জয় হিন্দ’ স্লোগান দিয়েছিলেন।

অপরদিকে সোমবার সন্ধায় রাবির আইন বিভাগে প্রভাষক নিয়োগে নির্বা চনী বোর্ডের একজন আবেদনকারীকে অর্থের বিনিময়ে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার উদ্দেশ্যে প্রো-ভিসি চৌধুরী মোহাম্মদ জাকারিয়ার কথোপকথন ফাঁস হয়েছে। আবেদনকারীর স্ত্রীর সাথে প্রো-ভিসির দর-কষাকষির ওই অডিওতে তাকে টাকার বিষয়ে কথা বলতে শুনা যায়।

ঢাকা, ০৩ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।