ভর্তি আবেদন ফি কমানোর দাবিতে আন্দোলন, রাবি প্রক্টরের বাধা


Published: 2019-07-29 18:09:48 BdST, Updated: 2019-08-25 20:19:20 BdST

রাবি লাইভ: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) ভর্তি পরীক্ষার আবেদন ফি কমানোসহ চার দফা দাবিতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধনে প্রশাসনের বাধা।

সোমবার দুপুর ১২ টায় কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে শিক্ষার্থীরা যৌক্তিক দাবি নিয়ে মানববন্ধন ও সমাবেশ করতে থাকলে হঠাৎ করে প্রক্টর প্রফেসর ড. লুৎফর রহমান এসে থামিয়ে দেন।

পরে ঘটনাস্থলে শিক্ষার্থীদের সাথে বাক-বিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন প্রক্টর। ২০ মিনিটের এই বাক-বিতণ্ডায় শিক্ষার্থীরা আন্দোলনের যৌক্তিকতা তুলে ধরলেও সকল যুক্তিকেই অগ্রাহ্য করেন প্রক্টর।

মানববন্ধনে আবেদন ফি ৫০০ টাকায় সীমাবদ্ধ রাখা, একাধিক ইউনিটে পরীক্ষা দেয়ার সুযোগ দেয়া, ইউনিট প্রতি ৩২,০০০ সিলেকশন পদ্ধতি বাতিল এবং নতুন বিভাগ খোলার দাবি জানান শিক্ষার্থীরা।

হিসাববিজ্ঞান ও তথ্য ব্যবস্থা বিভাগের শিক্ষার্থী আরেফিন মেহেদী হাসান যুক্তি দেন, উচ্চ মাধ্যমিকে পড়া বিষয়গুলোর ওপরই ভর্তি পরীক্ষা দেয়ার যে পদ্ধতি এবার রাখা হয়েছে তা হাস্যকর।

এতে করে বিভাগ পরিবর্তনে ইচ্ছুক শিক্ষার্থীরা যারা বাংলা, ইংরেজি এবং সাধারণ জ্ঞানের উপর প্রস্তুতি নিয়েছে তারা সমস্যায় পড়বে। তাছাড়া এবার ভর্তি ফর্মের যে উচ্চ মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে তাতে অনেক অসচ্ছল মেধাবী শিক্ষার্থী আবেদন করতে পারবে না।

এছাড়াও আন্দোলনকারীরা বলেন, এবারের পরীক্ষা পদ্ধতিতে ইউনিট প্রতি উচ্চ মাধ্যমিকের ফলাফলের ভিত্তিতে কেবলমাত্র ৩২,০০০ পরীক্ষর্থীর ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের যে সুযোগ রাখা হয়েছে তারও সমালোচনা করেন শিক্ষার্থীরা।

মানববন্ধনে বক্তারা তাদের দাবি মেনে না নেয়া হলে কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারি দেন। এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর ড. লুৎফর রহমান বলেন, উচ্চ মাধ্যমিকে পড়া বিষয়গুলোর উপর ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া হলেই মেধার সঠিক মূল্যায়ন হবে।

তাছাড়া ভর্তি ফর্মের যে উচ্চমূল্য নির্ধারণের কথা বলা হচ্ছে তা অযৌক্তিক কেননা এবার কেবলমাত্র একটি ইউনিটে পরীক্ষা দিয়েই বিভাগ পরির্তনের সুযোগ নিতে পারবে। এটা শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদেওর দূর্ভোগ লাঘব করতে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বলে মন্তব্য করেন তিনি।

ঢাকা, ২৯ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//আরএইচ

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।