সাপের বিষের ডাটাবেজ তৈরি করলেন রাবি শিক্ষক


Published: 2019-03-11 15:32:22 BdST, Updated: 2019-03-26 19:01:03 BdST

রাবি লাইভ: দেশের একমাত্র ও প্রথম সাপের বিষের প্রকৃতি ও বিষাক্তের ধরণ উল্লেখ্য করে ডাটাবেজ তৈরি করেছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. আবু রেজা। সাপগুলোর দেশীয় ও আন্তর্জাতিক নাম, খাদ্যাভ্যাস, প্রকার, প্রকৃতিসহ জীবনবৃত্তান্ত বিস্তারিত তথ্য দেয়া হয়েছে সেখানে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনেটিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের এই প্রফেসর বলেন, বাংলাদেশে পাওয়া বিভিন্ন প্রজাতির বিষাক্ত সাপ ও তার প্রত্যেকটির বিস্তারিত বর্ণনা দেয়া হয়েছে এই ডাটাবেজে। আমরা ফোকাস করেছি বিষাক্ত সাপগুলোর মধ্যে কী কী ধরনের বিষ এবং সেই বিষের গঠন আছে। বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা তথ্যগুলো নিয়ে এখানে সংরক্ষণ করেছি। প্রকৃতি, প্রকার অনুসারেই সেগুলো সাজানো হয়েছে।

২০১৩-১৪ সালের দিকে এই ডাটাবেজ তৈরির কাজ শুরু করেন অধ্যাপক রেজা। প্রতিষ্ঠিত এই ডাটাবেজের নাম স্নেকবিডি.কম www.snakebd.com

ওয়েবসাইটটিতে গিয়ে দেখা যায়, কালনাগিনী, গোখরা, কালো হলুদ ব্যান্ড লাঠি, মোহনার লাঠি, শঙ্খীনি, ধামান, পাথরসহ প্রায় ৮৯টি সাপের বিষের বিস্তারিত তথ্য রয়েছে সেখানে। কোন সাপের কামড়ে কী ধরনের ভেনোম ব্যবহার করা যাবে, কত ধরনের ভেনোম আছে তার সবই আছে সেখানে। গত প্রায় ৯ বছর ধরে সাপের বিষের উপর গবেষণা করছেন তিনি।

ডাটাবেজ তৈরির উদ্দেশ্য সম্পর্কে প্রফেসর ড. আবু রেজা বলেন, আমরা সাধারণত সাপের প্রোটিনের বিভিন্ন দিক খোঁজ করতে এনসিবিআইতে যাই। তার মধ্য থেকে একটি নির্দিষ্ট ভেনোম বের করা কঠিন। আমাদের ডেটাবেজে গিয়ে যদি কার্ডিওটক্সিন খুঁজে পেতে চাই সেটা খুব সহজ হবে। এখানে প্রায় ৩ শতাধিক সাপের ভেনোমের প্রোটিন বিশ্লেষণ করে একটা কাঠামো দেখিয়েছি।

তিনি বলেন, জীবতত্ত্ব নিয়ে গবেষণার জন্য গবেষকদের সহজলভ্য ডেটাবেজ এটি। যা সাপ নিয়ে গবেষকদের গবেষণায় সহায়তা করবে বলে আমার বিশ্বাস। শুধু বাংলাদেশ নয়, বলতে গেলে পৃথিবীতেই এই ধরনের ডাটাবেজ প্রথম।


ঢাকা, ১১ মার্চ (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।