বয়ফ্রেন্ডের ডাকে বিয়ের জন্য বেরিয়ে ছাত্রীর সর্বনাশ!


Published: 2018-09-22 11:25:05 BdST, Updated: 2018-10-22 16:37:18 BdST

পাবনা লাইভ : বয়ফ্রেন্ডের ডাকে বিয়ের জন্য বেরিয়ে এক ছাত্রীর সর্বনাশ হয়েছে। তাকে বিয়ে দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে দলবেঁধে ধর্ষণ করা হয়েছে। গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় ওই ছাত্রীকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় ওই স্কুলছাত্রীর বড় বোন শুক্রবার সুজানগর থানায় আনাই খাঁ (৩৫) এবং নায়েব আলী (৩৪) নামে দুইজনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলার পর শুক্রবার বিকেলে সুজানগর থানা পুলিশ আনাই খাঁকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতার আনাই খাঁ সুজানগর পৌরসভার ভবানীপুর খাপাড়া এলাকার মৃত জয়নাল খার ছেলে। অপর আসামি নায়েব আলী এখনও পলাতক রয়েছেন। নায়েব আলী সুজানগর পৌরসভার কাউন্সিলর সাহেবুল হাসানের ছোট ভাই।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ওই স্কুলছাত্রীর বাড়ি নাটোর জেলায়। সে সুজানগরে বড় বোনের বাড়িতে থেকে পড়ালেখা করে। সুজানগর পৌরসভার ভবানীপুর গ্রামের আব্দুল আজিজের ছেলে ও সুজানগর পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র সজিব হোসেনের সঙ্গে ওই স্কুলছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে ওই ছাত্রী ২০ হাজার টাকা এবং কিছু স্বর্ণের গহণা নিয়ে সজিবের সঙ্গে বিয়ে করার জন্য বাড়ি থেকে বের হয়। পথে দুই যুবক তাদের ধরে নিয়ে বিয়ে দেয়ার কথা বলে স্থানীয় কাউন্সিলর সাহেবুলের ছোট ভাই নায়েব আলীর বাড়িতে নিয়ে যায়। পরে রাত আনুমানিক সাড়ে ১০টার দিকে নায়েব আলী এবং আনারসহ ৬/৭ জন মিলে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে।

এ সময় তাদের কাছ থেকে বিয়ের জন্য আনা ২০ হাজার টাকা এবং প্রায় তিন ভরি স্বর্ণ কেড়ে নেয়। খবর পেয়ে মেয়েটির স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে বাড়িতে নিয়ে যায় এবং অবস্থার অবনতি হলে শুক্রবার পাবনা জেনারেল হাসাপাতালে ভর্তি করে।

সুজানগর থানার ওসি শরিফুল আলম জানান, এজাহারে দুইজনের নাম থাকলেও আরও ৩/৪ জন ছিল। শুক্রবার আসামি আনাইকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

ঢাকা, ২২ সেপ্টেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।