রাবি শিক্ষক রেজাউলের পরিবার দুই বছরেও বিচার পায়নি


Published: 2018-04-23 20:46:00 BdST, Updated: 2018-08-18 20:39:13 BdST

রাবি লাইভ: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক ড. এএফএম রেজাউল করিম সিদ্দিকী হত্যার দুই বছর পেরিয়ে গেলেও তার পরিবার কোনো সুষ্ঠু বিচার পাননি।

এ ব্যাপারে সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদুল্লা কলাভবনের সামনে থেকে তার স্মরণে শোক মিছিল করেছে ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। পরে একটি সংক্ষিপ্ত সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

ওই আয়োজনে ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী রাকিব সোহানের পরিচালনায় নিহত রেজাউল করিমের মেয়ে রেজোয়ানা হাসিন শতভী বক্তব্য রাখেন। এসময় তিনি বলেন, আমরা ৮ মে’র রায়ের অপেক্ষায় আছি।

এই রায়ের ওপর অনেক কিছু নির্ভর করছে। আমরা আশাবাদী হত্যাকারীদের ফাঁসির আদেশ দেয়া হবে। এর মাধ্যমে আমি বাবা হত্যার সুষ্ঠু বিচার পাব। এসময় তিনি প্রশাসনের কাছে হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী শরিফুল ইসলামকে অবিলম্বে গ্রেপ্তারের দাবি জানান।

ওই সমাবেশে ইংরেজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক এ.এফ.এম. মাসউদ আখতার বলেন, রেজাউল করিম সিদ্দিকীর মতো একজন শিক্ষককে হত্যা এটা দেশ ও জাতির জন্য কলঙ্কজনক।

এসব হত্যাকাণ্ড বন্ধ করতে সমাজের মানুষগুলোর দৃষ্টিভঙ্গি পাল্টাতে হবে। এ দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তন করতে সরকারের পাশাপাশি বুদ্ধিজীবীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে বলেও জানান তিনি।

সমাবেশে বিভাগের প্রায় শতাধিক শিক্ষক ও শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন। এদিকে আজ সন্ধ্যায় মুকুল মঞ্চে অধ্যাপক রেজাউল করিম স্মরণে মোমবাতি প্রজ্বলন করা হয়।
উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ২৩ এপ্রিল রাজশাহী নগরীর শালবাগান এলাকায় নিজ বাড়ির কাছে অধ্যাপক রেজাউল করিমকে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

এ ঘটনায় নিহত শিক্ষকের ছেলে রিয়াসাত ইমতিয়াজ সৌরভ বাদী হয়ে বোয়ালিয়া মডেল থানায় অজ্ঞাতদের আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেন। মামলাটি তদন্ত করেন নগরীর গোয়েন্দা শাখার পরিদর্শক রেজাউস সাদিক।

প্রায় সাড়ে ছয় মাসের তদন্ত শেষে ২০১৬ সালের ছয় নভেম্বর আটজনকে আসামি করে প্রতিবেদনটি আদালতে জমা দেন তিনি।

গেলো ১১ এপ্রিল মামলায় উভয়পক্ষের সাক্ষ্যগ্রহণ, শুনানি ও যুক্তিতর্ক শেষ হয়। যুক্তিতর্ক শেষে রাজশাহীর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক শিরীন কবিতা আখতার এ মামলার রায় ঘোষণার তারিখ ঠিক করেন আগামী ৮ মে। বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ রয়েছে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের মাঝে।

ঢাকা, ২৩ এপ্রিল (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।