রাবিতে শহীদ বুদ্ধিজীবী ও বিজয় দিবসের কর্মসূচি


Published: 2017-12-12 08:56:49 BdST, Updated: 2018-10-16 08:08:43 BdST


রাবি লাইভ: ১৪ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস ও মহান বিজয় দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের লক্ষ্যে বিভিন্ন কর্মসূচির আয়োজন করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) প্রশাসন।

বুদ্ধিজীবী দিবসের দিবসের কর্মসূচিতে রয়েছে, ১৪ ডিসেম্বর সূর্যোদয়ের সাথে সাথে প্রশাসন ভবন, আবাসিক হল ও অন্যান্য ভবনে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত উত্তোলন, সকাল ৭ টা ১৫ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও শহীদ স্মৃতিসংগ্রহশালার পক্ষ থেকে প্রশাসন ভবনের পশ্চিম চত্বরে শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিফলকে পুস্পস্তবক অর্পণ।

সকাল সাড়ে ৭ টায় রাবি শিক্ষক সমিতিসহ অন্যান্য সমিতি, হল প্রশাসন ও পেশাজীবী সংগঠনের প্রভাত ফেরি ও পুস্পস্তবক অর্পণ। বাদ জোহর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে বিশেষ মোনাজাত এবং সন্ধ্যা সাড়ে ৫ টায় কেন্দ্রীয় মন্দির প্রাঙ্গণে বিশেষ প্রার্থনা। এদিন সকাল ৮টা থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত শহীদ স্মৃতি সংগ্রহশালা দর্শকদের জন্য খোলা থাকবে।

এছাড়াও ১৬ ডিসেম্বর শনিবার মহান বিজয় দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় উদ্যাপনের জন্য বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। দিবসের কর্মসূচিতে আছে, ভোরে সূর্যোদয়ের সাথে সাথে প্রশাসন ভবন, আবাসিক হল ও অন্যান্য ভবনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন।

রাত ১২ টা ১ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও শহীদ স্মৃতিসংগ্রহশালার পক্ষ থেকে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ। সকাল ৬ টা ৪৫ মিনিটে শিক্ষক সমিতিসহ বিভিন্ন সমিতি, হল প্রশাসন ও সংগঠনের প্রভাত ফেরি ও শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ। সকাল ৭টায় বিশ্ববিদ্যালয় বধ্যভূমির স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ।

এদিন সকাল ৮ টা ৪৫ মিনিটে রাবি স্কুলের খেলাধুলা। সকাল সাড়ে ৯টায় শেখ রাসেল মডেল স্কুল প্রাঙ্গণে আনন্দমেলা। সকাল ১০টা ১৫ মিনিটে সাবাস বাংলাদেশ চত্বরে কুচকাওয়াজ।

এতে অভিবাদন গ্রহণ করবেন ভিসি প্রফেসর এম আব্দুস সোবহান। সকাল সাড়ে ১০ টায় কেন্দ্রীয় কাফেটেরিয়া চত্বরে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, রাবি ইউনিট কমান্ডের ও কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তনের পশ্চিম চত্বরে অফিসার সমিতির এবং নিজ নিজ কার্যালয় প্রাঙ্গণে সহায়ক কর্মচারী সমিতি, পরিবহন টেকনিক্যাল কর্মচারী সমিতি ও সাধারণ কর্মচারী ইউনিয়নের আলোচনা সভা।

দিবসের কর্মসূচিতে আরো আছে- সকাল ১০ টা ৪৫ মিনিটে সিনেট ভবন প্রাঙ্গণে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা। প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করবেন ভিসি প্রফেসর এম আব্দুস সোবহান ও পুরস্কার বিতরণ করবেন ভিসি পত্নী মনোয়ারা সোবহান। বেলা ১১টা থেকে বিকাল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় স্টেডিয়ামে প্রীতি ক্রিকেট, ফুটবল, হ্যান্ডবল ও ভলিবল খেলা।

বাদ জোহর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে কোরআন খানি ও বিশেষ মোনাজাত এবং সন্ধ্যা ৫:৩০ মিনিটে কেন্দ্রীয় মন্দিরে প্রার্থনা। সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টায় কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তনে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সন্ধ্যায় আলোকসজ্জা।

এদিন বরেন্দ্র গবেষণা জাদুঘর সকাল ১১টা থেকে বিকাল ৫টা এবং রাবি শহীদ স্মৃতি সংগ্রহশালা সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত দর্শকদের জন্য খোলা থাকবে। অনুষ্ঠানে যোগদানের জন্য সাহেব বাজার, কোর্ট, বর্ণালী ও কাটাখালী রুটে বাসের ব্যবস্থা থাকবে।


ঢাকা, ১২ ডিসেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।