ঢাবি: সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে ডাকসুতে উন্মুক্ত আলোচনা


Published: 2020-02-17 01:09:13 BdST, Updated: 2020-04-04 11:47:36 BdST

ঢাবি লাইভঃ ডাকসু'র কনফারেন্স রুমে "সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা: ছাত্র-শিক্ষকের ভাবনা ও প্রস্তাবনা শীর্ষক উন্মুক্ত আলোচনা" অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) এর আয়োজন করেন। এতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষক রুশাদ ফরীদি, ডাকসু'র ভিপি নুরুল হক নুর, সমাজসেবা সম্পাদক আখতার হোসেন। বিভিন্ন বিভাগের অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষক রুশাদ ফরিদী সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষায় ইউজিসির সক্ষমতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেন। তিনি বলেন, সমন্বিত ভর্তি কোন সিস্টেমে নিবে সেটা ইউজিসি নিশ্চিত করেনি। তাই একটা সন্দেহ থেকে যায়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভিপিু নুরুল হক নূর বলেন, বাইরের বিশ্ববিদ্যালয় গুলোতে এই সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু সেখানে সমন্বিত পরীক্ষা শেষে নিজস্ব কিছু লিখিত ও ভাইভা পরীক্ষা নিয়ে থাকে। আমাদের দেশের সাথে তো অন্যান্য দেশের তুলনা করলে হবে না। ওইখানে যে স্বচ্ছতা কাজের যে জবাবদিহিতা রয়েছে এটা আমাদের মেনে নিতেই হবে যে বাইরের দেশের কোয়ালিটি এবং আমাদের দেশের কোয়ালিটি এক নয়।

তিনি আরও বলেন, সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা হলে সেখানে স্থানীয় একটা প্রভাব-প্রতিপত্তি চলবে। সেক্ষেত্রে সাধারণ শিক্ষার্থীরা সঠিক মূল্যায়ন থেকে বঞ্চিত হবে।

আলোচনায় আইন বিভাগের ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী শিক্ষার্থী সাইদ আব্দুলাহ বলেন, বহিঃবিশ্বে যেসব বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা হয় সেখানে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর একটা র‌্যাংক থাকে। কিন্তু বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর সেরকম কোন র‌্যাংক নেই। তাহলে ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের কোন ক্যাটাগরিতে ভর্তি করানো হবে। প্রশ্ন প্রত্রের মান সঠিক থাকবে কি না সন্দেহ থেকে যায়।

আলোচনায় শিক্ষার্থীরা আরো বলেন, সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা নিলে প্রক্সি পরীক্ষা এড়াতে পারবে না। মাইগ্রেশন ও দেশের ভিন্ন প্রান্তে ভর্তি হলে যাথায়াত খরছ কমবে না বরং বাড়বে। একজন শিক্ষার্থী একবার মাত্র পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে তখন তার সমস্যা থাকলে সে দ্বিতীয়বার সুযোগ পাবে না। সম্ভব হলে বিভাগ ভিত্তিক পরীক্ষা নেওয়া উচিত বলেও মতামত দেন তারা।

সমাপনী বক্তব্যে ডাকসু'র সমাজসেবা সম্পাদক আক্তার হোসেন বলেন, আলেচনা সভা আমাদের জন্য আরো ভালো হতো যদি ইউজিসি সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার প্রক্রিয়াটি কীভাবে সম্পন্ন হবে সেটা ক্লিয়ার করতো। শিক্ষার্থীদের যাথায়াত ভোগান্তি কমানোর জন্য সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা নিলে ভবিষ্যতে তা আরো বেশি সমস্যা সৃষ্টি করার আশংকা থাকতে পারে বলে জানান তিনি।

ঢাকা, ১৬ ফেব্রুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।