কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের বৃক্ষরোপণ অভিযান


Published: 2019-07-23 18:49:53 BdST, Updated: 2019-08-19 08:22:54 BdST

জাককানইবি প্রতিনিধিঃ জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন ও সরকার পরিচালন বিদ্যা বিভাগের অষ্টম ও নবম ব্যাচের শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ অভিযান-২০১৯ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার সকাল ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টার 'ব্যথার দান' এর পাশে এ কর্মস‚চির উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. এ এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমান।

শিক্ষার্থীদের এমন মহতী উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. এ এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, একাডেমিক শিক্ষার পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের শোভাবর্ধণ ও পরিবেশ রক্ষায় শিক্ষার্থীদের ভ‚মিকা অগ্রগণ্য। আমি তাদের এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাচ্ছি এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের এ ধরনের কর্মকান্ডে আমার সার্বিক সহযোগিতা থাকবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন কলা অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মো. সাহাবউদ্দিন, লোকপ্রশাসন ও সরকার পরিচালন বিদ্যা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শাহ্জাদা আহসান হাবিব, সহকারী অধ্যাপক সঞ্জয় কুমার মুখার্জী, চারুকলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোহাম্মদ ফখর উদ্দিন, লোকপ্রশাসন ও সরকার পরিচালন বিদ্যা বিভাগের প্রভাষক অলি উল­াহ্, প্রভাষক হারুনুর রশিদ সহ বিভাগের বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

বিভাগের (ভারপ্রাপ্ত) বিভাগীয় প্রধান সঞ্জয় কুমার মুখার্জী বলেন, একটি দেশে আয়তন এবং জনসংখ্যা অনুসারে ২৫ শতাংশ বনভ‚মি থাকার কথা থাকলেও সরকারি হিসেবে দেশে এর পরিমাণ সাড়ে ১৭ শতাংশ, যা বেসরকারি হিসেবে ১০ শতাংশেরও কম। ফলে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য দিন দিন ঝুকিপ‚র্ণ হয়ে উঠছে পরিবেশ। পরিবেশের এই ঝুকিপূর্ণ পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে আমাদের শিক্ষার্থীদের এ বৃক্ষরোপণ অভিযান একটি মহতী উদ্যোগ। লোকপ্রশাসন বিভাগ সর্বদা এমন মহতী উদ্যোগের পাশে ছিলো, আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে।

বৃক্ষরোপণকালে শিক্ষার্থীরা মেডিকেল সেন্টারের পাশাপাশি শিক্ষকদের ডরমিটরি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সড়কের পাশে আমলকি, অর্জুন, জামরুল, কামরাঙ্গা, বট, আম, আমড়া, চেরি, হরিতকি, বকুল, চালতা, সহ বিভিন্ন প্রজাতির চারা রোপণ করা হয়।

ঢাকা, ২৩ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।