‘অবশেষে হার মানলেন' বিএসএমএমইউ এর ভিসি


Published: 2019-06-11 18:43:28 BdST, Updated: 2019-09-17 04:59:47 BdST

লাইভ প্রতিবেদকঃ অবশেষে হার মানলেন ভিসি। আন্দোলনের ফসল উঠোনে গেছে। তবে ঘরে ঢুকেনি। এদেশে শক্তের ভক্ত, নরমের জম। যার জোর ও ক্ষমতা আছে তার কাছে সবাই হার মানেন। টু শব্দটিও করেন না কেউ। এমনটি ঘটেছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ)। আন্দোলনের মুখে মেডিকেল অফিসার পদে নিয়োগ আপাতত: স্থগিত করা হয়েছে।

আর এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া। মঙ্গলবার মেডিকেল অফিসার পদে নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষা চলার দ্বিতীয় দিনে তিনি একথা জানান। কেন স্থগিত তা জানতে চাইলে তিনি অনেকটা রাগের কন্ঠে বলেন কারণ তো আছেই। আমি কোন দিকে সামলাবো।

জানাগেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল অফিসার পদে লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ না হওয়া চাকরিপ্রার্থীরা প্রায় একমাস ধরে পরীক্ষা বাতিল ও পুনঃনিরীক্ষণের দাবিতে আন্দোলন করে আসছিলেন। তাদরে জোড়ালো আন্দোলন ও দাবীর মুখে অবশেষে তা স্থগিত করা হলো।

মঙ্গলবার ফের বিক্ষোভ শুরু করেন আন্দোলনরত চিকিৎসরা। তারা বলেন আমরা শেষ পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাব। এসময় পুলিশের বাধা অতিক্রম করেই তারা ভবনের দ্বিতীয় তলায় থাকা ভিসির রুমের সামনে চলে যান।

আন্দোলনরতদের কয়েকজন প্রতিনিধি ভিসির সঙ্গে আলোচনায় বসেন। আলোচনার পর ভিসি তাদের নিয়োগ পরীক্ষা আপাতত স্থগিত করা হবে বলে আশ্বস্ত করেন। পরে ভিসি তাদের কাছে বশ্যতা স্বীকার করেন। এরপর তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্যদের সঙ্গে আলোচনায় বসেন।

সেখানেও এই নিয়োগ প্রক্রিয়া স্থগিত করার সিদ্ধান্ত দেয়া হয়। এছাড়া এই নিয়োগ নিয়ে ভবিষ্যতে কি করা হবে সে বিষয়েও আলোচনা করা হয় সেখানে। ভিসি বলেন, অনিবার্য কারণে নিয়োগ বন্ধ রয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা সময়মত নিয়োগ করবো। আমরা চাই ক্যাম্পাসে সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় থাকুক। সকলে ভাল থাকুক।

প্রঙ্গত, ২০০টি মেডিকেল অফিসারের পদে ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেয় বিএসএমএইউ কর্তৃপক্ষ। এর মধ্যে ১৮০ জন এমবিবিএস ও ২০ জন বিডিএস চিকিৎসক চাওয়া হয়।

প্রথম দফায় নিয়োগ পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা করা হলেও সেটি পিছিয়ে ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে পরীক্ষার দিন ঠিক করা হয়। পরীক্ষা নেয়ার জন্য প্রশ্নপত্রও ছাপানো হয়। কিন্তু অনিবার্য কারণ দেখিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ পরীক্ষা স্থগিত করে।

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ছাপা হওয়ার দেড় বছর পর গত ২২শে মার্চ সেই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর থেকেই আন্দোলনে নামেন চিকিৎসকরা। এখন দেখার বিষয় আগামীতে কি ঘটতে পারে।

ঢাকা, ১১ জুন (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।