হাবিপ্রবিতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন স্থগিত


Published: 2018-07-12 22:00:12 BdST, Updated: 2018-07-16 10:31:31 BdST

হাবিপ্রবি লাইভ: হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) বিজনেস স্টাডিস অনুষদের শিক্ষার্থীদের চার দফা দাবিতে আন্দোলন স্থগিত করেছে। চার দফা দাবিতে শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল, অবস্থান কর্মসূচী সহ বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করে যচ্ছিলেন। দাবিগুলো নিয়ে বেশ কয়েকবার বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তাদের আশ্বাস দিলেও এতে আশ্বস্ত হতে পারেননি শিক্ষার্থীরা।

জানা গেছে, সংকট নিরসনে গত ৫ জুলাই অনুষদের শিক্ষক ও আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সাথে ভিআইপি কনফারেন্স রুমে আলোচনায় বসেন ভিসি প্রফেসর ড. মু: আবুল কাসেম। তিনি সেদিন শিক্ষার্থীদের দাবিগুলো শোনার পর ভিসি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্য করে বলেন, তোমাদের দাবিগুলো যৌক্তিক।

এসময় ভিসি আরো বলেন, তোমরা আমার সন্তানের মতো, আমার সন্তানরা দিনের পর দিন এভাবে রোদে বৃষ্টিতে আন্দোলন করবে সেটা আমার জন্যও কষ্টের। তোমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের আশ্বাসে আশ্বস্ত হতে পারোনি তাই আমি নিজেই তোমাদের ডেকে পাঠিয়েছি।

ভিসি শিক্ষার্থীদের আশ্বস্ত করে বলেন, অধিভুক্ত কলেজ ও হাবিপ্রবির সার্টিফিকেট আলাদা করণের ব্যাপারে তিনি বলেন কলেজ ও ভার্সিটির সার্টিফিকেট অবশ্যই আলাদা হবে, এটা নিয়ে দ্বিমতের কিছুই নেই। অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজের সার্টিফিকেট যেভাবে দেয়া হয় এখানেও তাই হবে এবং সার্টিফিকেটে আকবর আলীর নাম থাকবে। দ্বিতীয় দাবি, অধিভুক্ত কলেজের শিক্ষার্থীরা হাবিপ্রবির রেগুলার শিক্ষার্থীদের সাথে এমবিএ করতে পারবে না বলেও তিনি জানান এবং বলেন আমরা তাদের এই ডিগ্রী দিতে বাধ্য না বরং তারা চাইলে ইভিনিং এমবিএ করতে পারবে সেটা তাদের উপর নির্ভর করবে।

হাবিপ্রবি’র এমবিএ ডিগ্রি পোস্ট গ্র্যাজুয়েট অনুষদের পরিবর্তে ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের নিজ নিজ বিভাগে প্রদান করার বিষয়ে তিনি বলেন এ ব্যাপারে কমিটি হয়েছে, কমিটির মাধ্যমে এটি একাডেমিক কাউন্সিলে যাবে। একাডেমিক কাউন্সিল ছাড়া সরাসরি আদেশের মাধ্যমে এই দাবি বাস্তবায়ন সম্ভব নয় বলেও তিনি জানান। পাশাপাশি তিনি বলেন অন্য অনুষদের জন্য তোমাদের বসে থাকতে হবে আমিও সেটা চাইনা। কিন্তু তার জন্য একটু সময় দিতে হবে। তিনি জানিয়েছিলেন প্রশাসন এ ব্যাপারে দ্রুত কাজ করে যাচ্ছে।

এদিকে ভিসির সাথে মিটিং এর পর বাকি দাবি জন্য শিক্ষার্থীরা সন্তষ্ট হলেও পিজিএস'কে কেন্দ্র করে তারা স্বল্প পরিসরে আন্দোলন করার ঘোষণা দেয়। আজ এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আবার শিক্ষার্থীদের নিয়ে বসেন এবং তাদেরকে কাজের অগ্রগতি জানানোর পাশাপাশি আগামী ১ তারিখের একাডেমিক কাউন্সিলে পিজিএস এর বিষয়টি ইতিবাচকভাবে উঠানোর কথা জানানো হয়। এতে সন্তষ্ট হয়ে শিক্ষার্থীরা মিষ্টি বিতরণ করে এবং ক্লাস ও পরীক্ষায় ফিরে যাওয়ার ঘোষণা দেন। রবিবার থেকেই পুরোদমে ক্লাস পরীক্ষা শুরু হবে বলে জানান আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

 


ঢাকা, ১২ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।