শাবিতে র‌্যাগিং : আর্ট পেপারে লজ্জাস্থান ঢেকে সেলফি!


Published: 2018-02-19 01:25:18 BdST, Updated: 2018-06-22 15:36:05 BdST

শাবি লাইভ : শিরোনামটা দেখে আতঁকে উঠবেন অনেকেই। এটা একটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের র‌্যাগিং স্টাইল। বাংলাদেশের অন্যতম সেরা এ বিশ্ববিদ্যালয়ের তরুণ-তরুণীরা দেশে বিদেশে নানাভাবে সুনাম বয়ে এনেছে। অথচ এমন একটি ঘটনায় এ বিশ্ববিদ্যালয়কে লজ্জায় ফেলে দিয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়া নবীন শিক্ষার্থীদের রুমে আটকে রাতভর র‌্যাগিং করা হয়েছে। এসময় লজ্জাস্থান আর্ট পেপার দিয়ে ঢেকে অর্ধউলঙ্গ করা হয়েছে শিক্ষার্থীদের। পরে তাদের জোর করে ফেইসবুকে স্ট্যাটাস দিতে বাধ্য করা হয়েছে।

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘটনা এটি। দেশের অন্যতম সেরা এ বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক পজিটিভ অর্জনকে ম্লান করে দিয়েছে কতিপয় শিক্ষার্থীরা অসভ্যতা। র‌্যাগিংয়ের নামে রীতিমতো নির্যাতন চালিয়েছে তারা। এঘটনা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে হৈ-চৈ শুরু হয়েছে। শাবির ঘটনা নিয়ে বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ফেইসবুক গ্রুপে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম ক্ষুন্ন হচ্ছে।

দাবি উঠেছে র‌্যাগিংয়ের ঘটনায় জড়িতদের কঠোর শাস্তির। কেবল এর মাধ্যমেই শাবির কলঙ্ক মুছন হতে পারে। তাদের অবশ্যই আইনের আওতায় আনা উচিত বলে দাবি উঠেছে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার রাত ১০টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সিনিয়র শিক্ষার্থীরা নবীন ছাত্রদের মেসে ডেকে নিয়ে র‌্যাগ দেয়। র‌্যাগিংয়ের শিকার এসব শিক্ষার্থীরা প্রচণ্ড মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। তারা ক্যাম্পাসে যেতেও ভয় পাচ্ছেন।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, ওই শিক্ষার্থীদের অর্ধনগ্ন ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন অশ্লীল ক্যাপশন দিয়ে একটি গ্রুপে পোস্ট করানো হয়েছে। এঘটনার সঙ্গে যারা জড়িত তাদের মধ্যে কয়েকজনের নাম জানা গেছে। তারা হলেন, সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শাহরিয়ার জামান রাহি, অদ্রি দাস, রঙ্গন, মাহমুদুল হাসান, রেদওয়ান জীম, হিমেল ও পলিটিক্যাল স্টাডিজ বিভাগের রনি। ওই শিক্ষার্থীদের কেউ কেউ র‌্যাগিংয়ের সময় মারমুখী ভূমিকায় ছিল বলেও জানা গেছে। সিনিয়রদের ভয়ে জুনিয়র শিক্ষার্থীরা অর্ধ উলঙ্গ হতে বাধ্য হয়েছে বলে জানা গেছে।

ঢাকা, ১৯ ফেব্রুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)/সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।