‘শুনেছিস? তরুণ আত্মহত্যা করেছে’


Published: 2018-02-15 03:18:48 BdST, Updated: 2018-05-22 16:07:15 BdST

এম.এস.আই খান : ‘কিছু মানুষের জীবনে কখনো কোথাও ভালবাসা জোটে না’ গণরুমে 'তরুণ' (তরুণ হোসেন) ছিল সবচেয়ে নিরহ একটি ছেলে। শৈশবে মা হারা অযত্নে বড় হওয়া এই ছেলেটি ২০১৫-১৬ সেশনে ভর্তি হয়েছিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিনান্সে বিভাগে।

অর্থিক সংকটে জর্জরিত ছেলিটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার পর থেকে নানা কারণে চরম হতাশায় ভুগতে শুরু করে। তার শারীরিক গঠন ও দেহের কালো রঙের কারণে অনেকের কাছেই সে যেন একটু বেশিই নিগৃহীত হত। কিন্তু আমি জানতাম ছেলেটা কতটা মেধাবী, কতটা সংগ্রামী। এর আগে আমি তার দুঃখ-সংগ্রাম নিয়ে পোষ্টও দিয়েছিলাম। বলেছিলাম, সফল হলে তোকে নিয়ে একটা ফিচার করবো।

গতকালও সবাই যখন তার একটি পুরানো ছবিতে হা হা রিঅ্যাক্ট দিচ্ছিল, আমি তখন কমেন্টে লিখেছিলাম 'মেধাবী ছেলের মুখ'। দ্বিতীয় বর্ষে ওঠার পরে তরুণ আমাকে অনেক অনুরোধ করেছিল, আমি যেন ওকে ভিসি স্যারের কাছে নিয়ে যাই এবং ওর সাবজেক্ট চেঞ্জ করে দেয়ার জন্য অনুরোধ করি! আমি হেসে বলেছিলাম, 'মানুষ ফিনান্স পায় না আর তুই পড়বি না! তাও আবার ২য় বর্ষে উঠে!'

আসলে মানসিক কষ্ট, অর্থিক সংকট আর ডিপার্টমেন্টের চাপ সব একসাথে না নিতে পেরে এই অনুরোধ করেছিল। পরে জেনেছিলাম ও নিজে নিজেই বিজনেস ফ্যাকাল্টির ডিন শিবলি রুবাইয়াতুল স্যারের কাছে গিয়েছিল। স্যারও ওকে বুঝিয়ে ফেরত পাঠিয়েছেন।

এই ক্যাম্পাসের প্রায় সবাই ভালোবাসতে চায়, প্রেমে পড়তে চায়। তরুণও বেসেছিল। কিন্তু চারপাশের তুচ্ছ-তাচ্ছিল্যতা তার নিজেকে প্রকাশ করার শক্তি কেড়ে নিয়েছিল। বাজে সিজিপিএ, বাজে চেহারা, কে তাকে ভালবাসবে? এই ক্যাম্পাসে শত নাল, নীল রঙিন বাতি জ্বলে, বাহারি পোশাকের সাজে প্রিয়জনের হাতে টিএসসিতে সন্ধ্যা নামে। কিন্তু তরুণদের জীবনে কোন ভালবাসা মেলে না, সব মহল থেকে ফিরতে হয় মলিন মুখে নিচু মাথায়।

এসব ঘটানা আজ থেকে এক বছরের পুরানো। আজ সন্ধ্যায় হঠাৎ বন্ধু মেহেদি হাসান রূপমের কল এল - 'শুনেছিস? তরুণ আত্মহত্যা করেছে।'

[কালেক্টেড : ফেইসবুক]

ঢাকা, ১৫ ফেব্রুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।