বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয় র‌্যাংকিং নিয়ে নানা প্রশ্ন!


Published: 2017-11-11 23:23:22 BdST, Updated: 2017-11-23 11:19:51 BdST

 


লাইভ প্রতিবেদক: বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে র‌্যাংকিং নিয়ে নানান প্রশ্ন উঠেছে। নাম প্রকাশ না করার প্রশ্নে এ বিষয়ে অনেক কথা বলেছেন। জানিয়েছেন যে প্রতিষ্ঠানটি এই জরিপ করেছে তাদের নিজস্ব বিশ্ববিদ্যালয়কে এগিয়ে আনতেই এই আয়োজন করা হয়।

অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিরা বলেছেন এই জরিপ করে একটি মহল বিশেষ ফায়দা লুটছেন। এটি করার কতটুকু বৈধতা আছে এমন প্রশ্নও করেছেন কেউ কেউ।

দেশের প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষে রয়েছে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় এবং দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি। বাংলা ট্রিবিউন ও ঢাকা ট্রিবিউনের যৌথ উদ্যোগে পরিচালিত একটি গবেষণার ফলাফলে এ তথ্য জানানো হয়।

এই র‌্যাংকিংয়ের তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে ইন্ডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশ (আইইউবি)। বাংলাদেশে বর্তমানে ৮৩টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে সরকারের কালো তালিকাভুক্ত ১৫টি বিশ্ববিদ্যালয়কে এই র‌্যাংকিংয়ের আওতায় আনা হয়নি।

এছাড়া যেসব বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম ২০১২ সালের পর শুরু হয়েছে ও এখনপর্যন্ত কোনও সমাবর্তন হয়নি, সেগুলোও এই গবেষণায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি।

যেসব বিশ্ববিদ্যালয় শুধু একটি নির্দিষ্ট বিষয়ে পড়ায় এবং যারা অনার্স ডিগ্রি অফার করে না, সেগুলোকেও এই গবেষণার আওতায় আনা হয়নি।

যেসব বিশ্ববিদ্যালয় প্রাইভেট ইউনিভার্সিটি অ্যাক্ট নীতিমালা অনুসরণ করে না (যেমন, এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইমেন) সেগুলোকেও এই গবেষণার বাইরে রাখা হয়েছে।

এছাড়া বাকি ৩২টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওপর এই গবেষণা পরিচালিত হয়েছে।
এরমধ্য থেকেই ফ্যাকচুয়াল, পারসেপচুয়াল ও এই দু’টির স্কোরের সমন্বয়ে চূড়ান্ত র‌্যাংকিং করা হয়েছে সেরা ২০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের।


ঢাকা, ১১ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।