বান্ধবীসহ লাশ হয়ে ফিরেছেন মইনুল, বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র আটক


Published: 2019-08-18 21:08:14 BdST, Updated: 2019-09-18 05:25:47 BdST

যশোর লাইভ: কোলকাতায় বান্ধবীসহ চিকিৎসার জন্য গিয়ে লাশ হয়ে ফিরেছেন গ্রামীন ফোন কোম্পানীর কর্মকর্তা মইনুল আলম। নিহত ফারহানা ইসলাম তানিয়া মইনুলের চাচাতো বোন হন। রবিবার সকালে বেনাপোল চেকপোষ্ট দিয়ে বাংলাদেশে আনা হয়েছে। সড়ক দুর্ঘটনায় তারা নিহত হয়েছেন কোলকাতায়। ওই ঘটনায় কোলকাতায় এক বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রকে আটক করা হয়েছে।

জানা গেছে, গত ১৪ আগষ্ট ডাক্তার দেখাতে তানিয়া ও মইনুল ভারতে যান। কলকাতা শহরের বাইপাসের সড়কের পাশে একটি বেসরকারি হাসপাতালে চোখ দেখিয়ে ১৬ আগষ্ট রাতের খাওয়া শেষে তারা সেক্সপিয়ার স্বরণীর চৌরাস্তার মোড়ে পুলিশ বক্সের পাশে দাড়িয়ে ছিলেন। এসময় একটি জাগুয়ার দ্রুত গতিতে একটি মার্সিডিজকে সজোরে ধাক্কা মেরে মইনুল আলম ও ফারহানা ইসলাম তানিয়াকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তারা নিহত হন।

দুর্ঘটনার জন্য কলকাতার নামি রেস্তোরাঁ আরসালানের মালিকের ছেলে পারভেজ আরসালানকে গতরাতে গ্রেফতার করেছে কলকাতা পুলিশ। দুর্ঘটনার সময় তিনিই চালকের আসনে ছিলেন বলে তদন্ত কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে জানিয়েছে আনন্দবাজার পত্রিকা।

পুলিশ জানিয়েছে, ২২ বছর বয়সী আরসালান পারভেজ লন্ডনের এডিনবরা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করছেন। কয়েকদিনের ছুটিতে বাড়িতে বেড়াতে এসেছিলেন। তার বিরুদ্ধে মোটর ভেহিক্যালস অ্যাক্টের একাধিক ধারায় মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। এছাড়া বাংলাদেশ হাইকমিশনের পক্ষ থেকেও মামলা দায়ের করা হয়েছে।


ঢাকা, ১৮ আগস্ট (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।