মির্জা ফখরুলকে ক্ষমা চাইতে ৪৮ ঘণ্টা সময় দিয়েছে ছাত্রলীগ


Published: 2018-11-15 14:56:27 BdST, Updated: 2018-12-11 20:06:22 BdST

ঢাবি লাইভ: মির্জ ফখরুলকে ছাত্রলীগ আল্টিমেটাম দিয়েছে। বলেছে অন্যায় ভাবে যেন তাদেরকে দোষারোপ না করা হয়। এর জন্য ফখরুলকে ক্ষমা চাইতে হবে। বুধবার ‘নয়াপল্টনে পুলিশের ওপর হামলা, গাড়ি ভাঙচুরে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা জড়িত’-বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইতে ৪৮ ঘণ্টা সময় দিয়েছে ছাত্রলীগ। ক্ষমা না চাইলে গুলশানে খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক কার্যালয় ঘেরাওয়ের হুমকি দিয়েছেন তারা।


মির্জ ফখরুলের বক্তব্যের কড়া প্রতিবাদ জানিয়ে বৃহস্পতিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি সংলগ্ন রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে এ ঘোষণা দেন ক্ষমতাসীন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। তিনি বলেন এটা কোন অবস্থাতেই মেনে নেয়া যায় না।


গোলাম রাব্বানী বলেন, ‘সারাদেশের মানুষ যখন নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে, তখন মির্জা আব্বাস ও গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের নেতৃত্বে বিনা উস্কানিতে ছাত্রদলের ক্যাডাররা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও সাধারণ মানুষের ওপর হামলা করেছে। যানবাহন ভাঙচুর করা হয়েছে, সরকারের সম্পত্তি বিনষ্ট করা হয়েছে।

উল্টো এর দায় চাপিয়ে দেয়া হয়েছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের ওপর। আমরা বিএনপি নেতাদের এ ধরনের অপসংস্কৃতি ও মিথ্যাচারের তীব্র নিন্দা জানাই। যারা হামলা করেছে তারা সবাই ছাত্রদল ও বিএনপির ক্যাডার।

অথচ মির্জা ফখরুল তাদের ছাত্রলীগের ‘হেলমেট বাহিনী’বলে নির্লজ্জ মিথ্যাচার করেছেন। এ কারণে ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে আমরা মির্জা ফখরুল, মির্জা আব্বাস ও গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করব।’ তিনি আরও বলেন, ‘মির্জা ফখরুলকে আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে তার বক্তব্য মিথ্যা বলে স্বীকার করে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে হবে। অন্যথায় আমরা খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয় ঘেরাও করব।’

ওই সমাবেশে ছাত্রলীগের সভাপতি রেজোয়ানুল হক চৌধুরী শোভন বলেন, ‘বিএনপি-জামায়াত দেশের সম্পদ বিনষ্ট করেছে। বাংলাদেশের মানুষের ভালমন্দ তারা চায় না, তারা চায় ক্ষমতা। অপরদিকে আওয়ামী লীগ নিরলসভাবে এদেশের মানুষের জন্য পরিশ্রম করে যাচ্ছে।’ দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহের মধ্যেই বুধবার ঢাকার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে পুলিশের সঙ্গে দলটির নেতাকর্মীদের সংঘর্ষ হয়।

সংঘর্ষে পুলিশের একটি পিকআপ ভ্যানসহ দুটি গাড়ি জ্বালিয়ে দেয়া হয়। সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নির্দিষ্ট দূরত্বে অবস্থান নিয়ে টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে পুলিশ। এ ঘটনায় পল্টন থানায় ৩টি মামলা করেছে পুলিশ। এই ঘটনার সঙ্গে ছাত্রলীগের কোন সম্পর্ক নেই। আমরা শান্তি ও শৃংখলায় বিশ্বাসী দল।

 

ঢাকা, ১৫ নভম্বের (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।