শিক্ষামন্ত্রীর পদত্যাগের দাবী করলেন বি. চৌধুরী


Published: 2017-12-26 16:28:03 BdST, Updated: 2018-12-10 01:59:47 BdST

 

লাইভ প্রতিবেদক: উচ্চ মাধ্যমিক, মাধ্যমিকের পর প্রাথমিকের পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনার পর শিক্ষামন্ত্রীর পদে থাকা উচিত না বলে মন্তব্য করেছেন সাবেক প্রেসিডেন্ট প্রফেসর ডা. একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী।

তিনি বলেন, ক্লাস ওয়ান, টু, থ্রি... প্রাইমারি স্কুলের ছাত্র, তার পরীক্ষার কাগজ (প্রশ্ন) নাকি ফাঁস হয়ে যায় ! এ রকম অপরাধের পর মন্ত্রী স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করে না, তাদেরকে (অভিযুক্ত শিক্ষক) বহিষ্কারও করা হয় না।

এরা কি শিক্ষক থাকার উপযুক্ত? এ ধরনের ঘটনার পর মন্ত্রীর পদে থাকা উচিত না, কিছুতেই। এ বিষয়টি দেশের তরুণ সমাজকে ভাবতে হবে।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সফিউর রহমান মিলনায়তনে ন্যাশনাল ইয়ুথ ফোরামের বাৎসরিক জাতীয় সম্মেলন ‘বাংলাদেশ ইয়ুথ পার্লামেন্টে’ আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এই ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, চার বছরের বাচ্চাকে ধর্ষণ করা হয়, লজ্জায় মাথা হেঁট হয়ে যায়।

যারা শিশু ধর্ষণ করে তাদের মৃত্যুদণ্ড সাজা দিতে হবে। যখন চারদিকে অ্যাসিড মারা হতো, যেই এই অপরাধের সাজা মৃত্যুদণ্ড হয়ে গেলো কাপুরুষরা সঙ্গে সঙ্গে পালিয়ে গেল। সাবেক এ প্রেসিডেন্ট বলেন, কাল আইন করা হোক যে, শিশু ধর্ষণের আসামির বিরুদ্ধে অপরাধ প্রমাণ হলে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হবে, আমি গ্যারান্টি দিলাম- তার সাত দিন পর থেকে শিশু ধর্ষণ হবে না।

এ সময় সংবিধানে কোনো আসামিকে ক্ষমা করে দেয়ার প্রেসিডেন্টের যে বিধান রয়েছে, তা রদ করারও আহ্বান জানান সাবেক এ প্রেসিডেন্ট। তিনি বলেন, তথাকথিত সাংবিধানিক অধিকার দিয়ে প্রেসিডেন্টের নামে দোষগুলো চাপানো হয়।

আসে সরকার থেকে রিকুয়েস্ট, প্রেসিডেন্ট সই করে দেয়- ‘মাফ করিয়া দিলাম’। এই মাফ করার অধিকার প্রেসিডেন্টকে বন্ধ করতে হবে। সন্ত্রাসীদের মাফ করতে পারবেন না ও ধর্ষণকারীকে মাফ করতে পারবেন না।

বাংলাদেশ ইয়ুথ পার্লামেন্টের চেয়ারপারসন রুমানা ইসলাম সেতুর সভাপতিত্বে ‘সাইবার ইথিকস অ্যান্ড ইয়ুথ এগেইনেস্ট সাইবার ক্রাইম’ শীর্ষক অনুষ্ঠানের আলোচনায় বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। ফেডারেশন অব বাংলাদেশ হিউম্যান রাইটস অর্গানাইজেশনের চেয়ারম্যান মো. শাজাহান ও সাবেক এমপি গোলাম মাওলা রনি বক্তব্য দেন।

 

ঢাকা, ২৬ ডিসেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।