পদ্মায় গলিত লাশ, সিএ পড়াশোনায় ইন্টার্নিতে ছিলেন ইকবাল


Published: 2019-04-07 07:36:14 BdST, Updated: 2019-10-14 22:00:28 BdST

মাদারীপুর লাইভ : সিএ পড়াশোনা করছিলেন চট্টগ্রামের ইকবাল মাহমুদ। ইন্টার্ন করছিলেন রাজধানীর পান্থপথে। নিজেকে মেলে ধরার আগেই না ফেরার দেশে চলে যেতে হয়েছে তাকে। মাদারীপুরের শিবচরে পদ্মা নদীতে তার গলিত লাশ মিলেছে। গত ২ এপ্রিল ভোররাতে মাদারীপুরের পদ্মায় শিবচর থানা পুলিশ যে লাশটি উদ্ধার করেছে সেটি সনাক্ত হয়েছে শনিবার। ওই লাশটি ইকবাল মাহমুদের বলে স্বজনরা নিশ্চিত হয়েছেন। ইকবাল মাহমুদ কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার হারবাং গ্রামের মৃত শাহ মোহাম্মদ এমরানের একমাত্র ছেলে। তিনি সম্ভ্রান্ত ও ধনাঢ্য পরিবারের সন্তান।

জানা যায়, মাদারীপুরের পদ্মা নদী থেকে গত ২ এপ্রিল ভোরে পুলিশ ইকবালের লাশ উদ্ধার করে। তাৎক্ষনিক ওই লাশের কোন নাম পরিচয় জানা যায়নি। তাই অজ্ঞাতনামা পরিচয়ে লাশের ময়নাতদন্তের জন্য মাদারীপুর মর্গে প্রেরণ করা হয়। পরে আঞ্জুমানে মফিদুলের মাধ্যমে লাশ সেখানে দাফন করা হয় হয়।

ইকবালের বোন সাদিয়া ইসরাত জানান, ইকবাল মাহমুদ চ্যার্টার একাউন্টিং (সিএ) পড়ার কারণে ঢাকার পান্থপথ এলাকার ইউটিসি বিল্ডিংয়ে ইন্টার্নি করতেন। গত ৩১ মার্চ সেখান থেকে আর বাড়ি ফিরেননি। ৩/৪ দিন খোঁজাখুজির পর কোথাও তাকে না পেয়ে তেজগাঁও থানায় একটি জিডি করা হয়। মোবাইলে তথ্য প্রযুক্তিরতে নিহত ইকবাল মাহমুদের সর্বশেষ অবস্থান দেখায় শিবচরে। তাই পরিবারের স্বজনরা ওই ইকবাল মাহমুদের সন্ধানে শনিবার সকালে শিবচর থানায় আসেন। পরে তারা জানতে পারেন তাকে ইতিমধ্যে দাফন করে দেয়া হয়েছে।

জানা গেছে, নিহত ইকবাল মাহমুদ চার বোনের মধ্যে একমাত্র ভাই। তিনি প্রয়াত বিচারপতি আমিরুল কবিরের নাতি। পরিবারের সদস্যদের অভিযোগ ইকবাল মাহমুদকে কে বা কারা হত্যা করে লাশ নদীতে ফেলে দিয়েছে। নিখোঁজের একদিন পর ইকবাল মাহমুদের ব্যবহৃত ল্যাপটপ সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে তার বড় বোনের ঢাকার বাসার ঠিকানায় আসে। এরপর থেকে পরিবারের লোকজন হন্যে হয়ে তাকে খুঁজতে থাকে।

শিবচর থানার ওসি মোঃ জাকির হোসেন মোল্লা জানান, পদ্মায় উদ্ধার হওয়া ওই লাশ ইকবাল মাহমুদ নামের এক ব্যাক্তির। লাশের পরনে থাকা জুতা কাপড় চোপড় দেখে তার বোন সাদিয়া ইসরাত ও তার স্বামী সালাউদ্দিন ইকবালকে শনাক্ত করেন। যেহেতু লাশ শনাক্ত করা সম্ভব হয়েছে তাই ইকবাল মাহমুদের লাশ উত্তোলন করে তার স্বজনরা নিয়ে যেতে ইচ্ছে পোষন করেন। সে কারণে মাদারীপুর বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিষ্টেট্রের কাছে লাশ ফেরত নেওয়ার আবেদন করা হয়েছে বলে উল্লেখ করেন ওসি।

ঢাকা, ০৭ এপ্রিল (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।