স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বৃদ্ধি হুমকিস্বরূপ


Published: 2020-08-12 11:31:06 BdST, Updated: 2020-09-26 16:59:03 BdST

আজাহারুল ইসলাম, ইবিঃ একজন মানুষ বিকশিত হয় শিক্ষাজীবনে। এসময় নিজেকে গড়ার উপযুক্ত সময়। আজকের তরুণরা আগামী দিনে দেশকে নেতৃত্ব দিয়ে এগিয়ে নিয়ে যাবে। তাই গৎবাধা অ্যাকাডেমিক পড়াশোনাই যথেষ্ট নয়। এরবাইরেও একজন শিক্ষার্থীর বাস্তবমূখী জ্ঞান রাখা জরুরী।

স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন যোগ্য নেতা তৈরির কারিগর। একজন স্বেচ্ছাসেবক সমাজে উল্লেখ্যযোগ্য ভূমিকা পালন করে। তারা স্বেচ্ছায় বিভিন্ন কর্মকান্ড পরিচালনা করে থাকে। এসব সংগঠনের সাথে যুক্তদের সিংহভাগ শিক্ষার্থী।

এসব সংগঠন সমাজের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে, আর্তমানবতার সেবায়, চারিত্রিক উন্নয়ন, নেতৃত্বের গুণাবলী অর্জন, রক্তদান কর্মসূচি, পথশিশুদের সহায়তা, বানভাসীদের সহায়তা, সমাজে পিছিয়ে পড়া মানুষের সেবাসহ বিভিন্ন লক্ষ্যে কর্মকান্ড পরিচালনা করছে।

এরিস্টটল বলেছেন, ‘সংগঠন মানুষের নেতিবাচকতা থেকে বেড়িয়ে আসতে সহযোগিতা করে, হতাশা ও দুঃখবোধ থেকে বেড়িয়ে আসতেও মানুষকে সাহায্য করে। চলার পথে একে অন্যকে সহযোগিতা করার মানসিকতা তৈরী করে।’

তবে এই করোনা মহামারি পরিস্থিতিতে হু হু করে বেড়েই চলেছে স্বেচ্ছাশ্রম বা স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সংখ্যা। এছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনও ক্রমশ বাড়ছে। নামে ভিন্নতা থাকলেও অধিকাংশ সংগঠনের কর্মকান্ড একইরকম। অনেকেই পদের লোভে নতুন সংগঠন খুলছে। নিয়মমাফিক এদের কোন গঠনতন্ত্র নেই। কিছু সংগঠন ভালো উদ্দেশ্য নিয়ে তৈরি হলেও অধিকাংশের ভিত্তি নড়বড়ে।

অনেক সংগঠনই অসহায়দের পাশে দাঁড়াতে সমাজের বিত্তবানদের থেকে অনুদান নিচ্ছেন ঠিকই। কিন্তু সুষ্ঠু বন্টন না করে সংগঠনের আড়ালে হাতিয়ে নিচ্ছেন লাখ লাখ টাকা। পত্রিকার পাতা উল্টালেই এরকম অসংখ্য সংবাদ চোখে পড়ে। লোক দেখানো কিছু কার্যক্রম পরিচালনা করে নাম কুড়ায় এরা। যা রীতিমতো পরবর্তী প্রজন্মের জন্য হুমকিস্বরূপ।

স্বেচ্ছাসেবী এসব সংগঠনের প্রচার প্রসার অধিকাংশ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। সংগঠন খুলে আগে তৈরি করা হয় ফেসবুক গ্রুপ/পেজ। গ্রুপ/পেজ প্রমোট করতে, মেম্বার বাড়াতে উঠেপড়ে লাগে গ্রুপ এডমিন অর্থাৎ সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা। পরে এসবের নাম পরিবর্তন করে ব্যবহার করে নিজেদের কাজে। টাকার বিনিময়ে বিক্রিও করে।

সংগঠন না বাড়িয়ে যেসব সংগঠন ইতোমধ্যে প্রতিষ্ঠিত, সেসব সংগঠনে স্বেচ্ছাসেবকরা একত্রে তাদের কর্মকান্ড পরিচালনা করলে দেশ ও জাতি উভয়ই শিখরে পৌঁছাবে। সংগঠনের লক্ষ্য উদ্দেশ্য সফল হবে।

আজাহারুল ইসলাম
শিক্ষার্থী, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া
ই-মেইলঃ [email protected]

ঢাকা, ১২ আগস্ট (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।