একজন বেলীর চাপা কান্না!


Published: 2019-04-29 20:15:34 BdST, Updated: 2019-07-21 02:38:58 BdST

নিলুফার লাকি: বেলী। একটি নাম। একটি কান্না। এক সময়কার স্বচ্ছল ফুরফুরে স্বভাবের বেলী আজ বদলে গেছে। নেই তার কোন উচ্ছাসা। নেই কোন ভাবনা। সুখ-শান্তি আর দুঃখ তাকে স্পষ্ট করে না। একেবারেই বদলে গেছে। অভাব আর কষ্ট তাকে আর ছুতে পারে না।

এসবের ব্যাপারে তার কোন আর জানবার নেই। অনুযোগ নেই,অভাব বোধের তীব্রতার অসহায় অনুশোচনা নেই। দর্শনবিধির চূলচেরা হিসাবে হিমশিম খেয়ে কখনো বিব্রতবোধ আঁছরে পড়েনা চেতনায়। সুখ,আয়েশ, অথবা ভালো খাবারে প্রয়োজনীয়তা নেই বেলীর জীবনে।

এই মহিলার পুরো নাম নাম বেলী আক্তার। মোটামুটি ভালো এবং সচ্ছল পরিবারের মেয়ে ছিলো একদিন। বাবার ভূসম্পত্তির প্রাচুর্যে বড় হতে থাকা মেয়েটি মা হারা হয় অল্প বয়সে। পড়ালেখায় মেধাবী হলে ও বিয়ে হয়ে যায়।

তারপরের কাহিনী আমার অজানা, এখন বয়স ৭৫রের কাছাকাছি। বিভিন্ন বাড়িতে কাজ করে নিজের আহার সংগ্রহ করে, কেউ কেউ এমনিতেই খেতে দেয়। বাবার ভিটে বাড়িতে স্থান হয়নি, যেখানে রাত সেখানেই কাত। কেটে যাচ্ছে সময়।

তার কোন অনুযোগ নেই। অভিযোগ নেই। অভাব বোধের তীব্রতার অসহায় অনুশোচনাও আর তাকে দমাতে পারেনি। দর্শনবিধির চূলচেরা হিসাবে হিমশিম খেয়ে কখনো বিব্রতবোধ আঁছরে পড়েনা চেতনায়।

তার মাঝে সুখ,আয়েশ, অথবা ভালো খাবারে প্রয়োজনীয়তা নেই। এখন বেলীর জীবনে তেমন কোন চাওয়া পাওয়াও নেই।

হাসে,পুরনো দিনের গান গায় সুরেলা কন্ঠে। রাতে ঘুমের কোন ব্যাঘাত ঘটেনা, মাঝেমাঝে রাজনীতি নিয়ে কথা বললে খুব সহজ ভাবে বলে আমার খাবার কাজ করে যোগাড় করি,সৎ ভাবে বেঁচে থাকতে চাই।

এই মহিলার শেষ কথা যার 'কেউ নেই তার আল্লাহ আছে'

ঢাকা, ২৯ এপ্রিল (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//আরএইচ

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।