বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে লাইফে প্রেম ও বাস্তবতা


Published: 2018-11-27 13:37:35 BdST, Updated: 2019-03-21 10:17:17 BdST

নাঈম আরেফিন : ফার্স্ট ইয়ারে সদ্য ক্যাম্পাসে পা দেওয়া একঝাঁক নতুন মুখ, র‌্যাগ ও ক্যাম্পাসে নিজেকে মানিয়ে নিতে ব্যস্ত। যাদের বেশিরভাগ রিলেশনশিপের চেয়ে রাজনীতেতে যোগদান, বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনে যোগদানের উপর বেশি গুরুত্ব দেয়। তখন একজনে সীমাবদ্ধ না হয়ে ফ্রেন্ড সার্কেলে আড্ডা মাস্তি নিয়ে সবাই ব্যস্ত থাকে। এসময়ের ব্যস্ত কর্মসূচিগুলোর মধ্যে থাকে বিভিন্ন ডেপ্ট, ব্যাচের সাথে ফুটবল/ক্রিকেট ম্যাচ আয়োজন করা, বিভিন্ন জায়গায় ট্যাুর দেওয়া, দলবেঁধে একসাথে ঘুরতে যাওয়া, গান গাওয়া ইত্যাদি। আর অনেকের শুরু হয়ে যায় টিচার হওয়ার লক্ষ্য নিয়ে পড়াশোনা তবে কয়েকজন কপালওয়ালা আছে যাদের ফার্স্ট ইয়ার থেকেই শুরু হয়ে যায় রঙ্গিন জীবন।

সেকেন্ড ইয়ার : এইসময় প্রেম ভালোবাসায় আবদ্ধ হওয়ার জন্য বেশিরভাগই নবাগত জুনিয়রদের আশায় বসে থাকে। অনেকে বিভিন্ন মাধ্যম ধরে, বহু সময় সাধনা ব্যয় করে রিলেশনশিপে জড়ায়। তখন আস্তে আস্তে বন্ধু সার্কেলগুলো থেকে সদস্যসংখ্যা কমতে থাকে বা Inactive হয়ে যায়। ব্যাচমেট বান্ধবীগুলোও আস্তে আস্তে পাত্তা দেওয়া শুরু করে, বন্ধুত্বের গভীরতা বাড়তে থাকে। নতুন নতুন ছোট ছোট সার্কেল গড়ে উঠে।

তবে বেশিরভাগেরই ক্ষেত্রে প্রেমের চেয়ে টিউশনি করানোর চিন্তাটা বেশি থাকে। অনেকেই স্বাবলম্বী হতে চায়, নিজে নিজের খরচ মেইনটেইন করার চেষ্টা করে। ফার্স্ট ইয়ারে কেউ টিউশনি করায় না এমন না, তবে সেকেন্ড ইয়ারে সেটা প্রকট আকার ধারন করে। আগের মতো একসাথে বসে আড্ডা দেওয়ার সময় থাকেনা। একসময় সবাই যার যার যার মতো স্বার্থপর হয়ে যায়।

থার্ড ইয়ার : ভার্সিটি লাইফ পুরোপুরি উপলব্ধি হয় থার্ড ইয়ারে উঠলে। এসময় মুখোমুখি হতে হয় চরম বাস্তবতার। বিশ্ববিদ্যালয় লাইফে কত শাখা-প্রশাখা, কত হিসাব-নিকাশ সবই বোঝা যায় একমাত্র থার্ড ইয়ারে। এসময় অধিকাংশের মনে এইবার একখান প্রেম করা দরকার বোধ জাগ্রত হয় তবে চাইলেই হয়ে উঠেনা। রিলেশনশিপের চেয়ে টিউশনির পাশাপাশি চাকরির প্রিপারেশন নিতে হবে ফ্যামিলির হাল ধরতে হবে, আমাকে কিছু একটা করে দেখাতে হবে এইরুপ ভাবনা চলে আসে এবং ব্যাকবেঞ্চার অনেকের কাছে রিলেশনশিপের চেয়েও ড্রপগুলো তোলার গুরুত্বটা সবচেয়ে বেশি থাকে।

সিজিপিও বাড়াতে হবে, আগের কোর্সে ইম্প্রুভ দিতে হবে,নেক্সট কোন কোর্সে মিনিমাম কত পেতে হবে সেটাই সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এইবছর ড্রপ তোলার পর আর কতটি থাকবে, সিজিপিও কত হবে এসব ক্যালকুলেশন নিয়েই ব্যস্ত অন্যকিছু ভাবার সময় নাই।

ফোর্থ ইয়ার : এখনো চতুর্থ বর্ষে পা দেয়নি, অভিজ্ঞতা নাই বলে লিখলাম না।

নাঈম আরেফিন
শাবিপ্রবি, সিলেট

ঢাকা, ২৭ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।