কথায় কথায় গার্লফ্রেন্ডের ধমক, আপনার পুরুষত্ব নেই!


Published: 2018-09-01 13:33:13 BdST, Updated: 2018-09-20 15:31:30 BdST

আরাফাত আবদুল্লাহ : একটা সম্পর্ক চালাতে গিয়ে যদি আপনাকে কথায় কথায় গার্লফ্রেন্ডের ধমক খেতে হয়, তার কথায় উঠতে বসতে হয়, তার সমস্ত অন্যায়গুলোকে ভালোবাসার দোহাই দিয়ে সহ্য করে নিতে হয় তাহলে আমি বলবো পুরুষ হিসেবে আপনি ভালোবাসা ডিজার্ব করেন না। আপনার পুরুষত্ব নেই।

দেখতেই পাচ্ছেন মেয়েটার ফোন ওয়েটিং। ঘন্টার পর ঘন্টা কল করেও লাভ হচ্ছে না। সে রেসপন্স করছে না। এরপর সকাল বেলা উঠে একটা মেসেজ দেয়া মাত্রই আপনি পাগলা কুকুরের মতো দৌড়ে গিয়ে রোমিও স্টাইলে তাকে বিনোদন দিতে বসে গেলেন।

sorry to say... এটা ভালোবাসা না।

ইয়া লম্বা মেসেজ দিয়ে বসে আছেন। দেখছেন মানুষটা অনলাইনে এক্টিভ আছে। মেসেজের কোন উত্তর দিচ্ছে না। মেসেজ সিন করছে না। অথবা সিন করলেও জবাব দিচ্ছে না। বুঝে নেন আপনার গুরুত্ব তার কাছে গ্রামীন ফোনের মেসেজের মতোই। এর বেশি এক বিন্দু না।

প্রতিটা দিন তার জন্য শাটলে সিট ধরে বসে থাকেন। মেয়ে আপনাকে পাত্তাও দেয় না। আপনার সামনে বসেই তার বেস্ট ফ্রেন্ডের সাথে সিট শেয়ার করে চলে যায়।

এরপর একদিন বাধ্য হয়ে আপনার কাছে সিট চাইতে আসলো। আর আপনি পাশের বাসার ভদ্র ছেলের মতো নিজের সিট ছেড়ে দিয়ে তাকে বসতে দিলেন।

আপনার মধ্যে ভাই পুরুষত্ব নেই। যেটা আছে সেটা হইলো লুল ইমোশন। একটা ভুল মানুষের প্রতি ভুল আকাঙ্ক্ষা।

ভালো জায়গায় চাকরি করেন।
সমাজে আপনার ইমেজ আছে।
জেনে শুনে বিয়ে করতে গিয়েছেন একটা ক্যারেক্টারলেস মেয়েকে। দোহাই দিচ্ছেন ভালোবাসা দিয়ে ঘর ভরিয়ে রাখবেন।

সরি ভাই... আপনার এই ভালোবাসাই আপনার কাল হয়ে দাঁড়াবে।

সম্মানের পেছনে যেদিন আস্ত বাঁশ ঝাড়টা ঢুকবে সেদিনই বুঝতে পারবেন হাফ বার্গার সবসময় হাফ বার্গারই থাকে। মানুষ হয় না।

ইমোশোন আর ভালোবাসার দোহাই দিয়ে যারাই এরকম মানিয়ে চলার অভ্যাস করেছে তাদের জীবনটাই শেষ হয়েছে।

যে মানুষটা এখন আপনাকে গুরুত্ব দিচ্ছে না, সে পরবর্তীতে আপনাকে গুরুত্ব দেবে তার কোন কারণ নেই। বড়জোর ইউজ করতে পারে। এর বেশি কিছু না।

ফোন ওয়েটিং থাকার অজুহাত চাইলেই যে মেয়েটা আপনার উপর তেলে বেগুনে জ্বলে উঠে খবর নিয়ে দেখুন আপনি তার আসল চেহারা জেনে যাবেন।

শুধু শুধু ভালোবাসার দোহাই দিয়ে সব কিছুর সাথে মানিয়ে চলার অভ্যাসটা বাদ দেন।
এতে কোন লাভ না। যা আছে তার পুরোটাই ক্ষতি। লিখে রাখুন।

সবার আগে নিজের আত্মসম্মানবোধ।
এরপর অন্যের প্রতি ভালোবাসা।

Arafat Abdullah (মধ্যরাতের অশ্বারোহী)
University Of Chittagong

ঢাকা, ০১ সেপ্টেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।