ট্রলার ডুবিতে নিখোঁজ ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার


Published: 2020-08-06 12:17:57 BdST, Updated: 2020-09-30 22:51:56 BdST

নেত্রকোনা লাইভঃ ময়মনসিংহ হতে বেড়াতে এসে ট্রলার ডুবির ঘটনায় ১৭ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছিল ও নিখোঁজ রাকিব (২০) নামে একজনের লাশ বৃহস্পতিবার সকালে স্থানীয় লোকজন রাজালিকান্দার ইউসুফ আহমেদ এর বাড়ীর পিছন থেকে পানিতে ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। নেত্রকোনার মদন উপজেলায় মিনি কক্সবাজার খ্যাত উচিতপুরে বেড়াতে এসে গোবিন্দশ্রী ইউনিয়নে রাজালি কান্দা হাওরে এই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে।

বুধবার দুপুরে ময়মনসিংহ সহ নেত্রকোনার বিভিন্ন এলাকা থেকে ঘুরতে আসা নানা বয়সের মাদ্রাসার শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও পরিবারের লোকজনসহ ৪৮ জন পর্যটক ট্রলারে ওঠে মদন উচিৎপুর ঘাট থেকে রাজালীকান্দার রামদীঘা বিলে পৌঁছাতেই এ দুর্ঘটনা ঘটে।

পর্যটনবাহী ট্রলারে অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাইয়ে ট্রলার ডুবিতে এ ঘটনা ঘটে। নিহতদের মধ্যে একই পরিবারের ৬ জন। এবং ৭ থেকে ১২ বছর বয়সী ৬ শিশু রয়েছে বলে জানা গেছে। মদনের উচিৎপুর ঘাটে ট্রলার চালক অতিরিক্ত বোঝাই করে ২০/২৫ জনের নৌকায় ৪৮ জনের মতো যাত্রী তুলে গোবিন্দশ্রীর সামনের হাওরে যায়।

এসময় প্রবল বাতাসে ও নৌকায় নড়াচড়া করার কারণে ট্রলারটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ডুবে যায়। তাদের মধ্যে সাঁতরে ৩০ জন তীরে উঠতে পারলেও বাকিরা ডুবে যায়।

পরে স্থানীয়দের সহায়তায় নেত্রকোনা ও মদন ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার খানে আলমের নেতৃত্বে ১৭টি লাশ উদ্ধার করা হয়। নিখোঁজ একজনকে উদ্ধার তৎপরতা চলমান।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বুধবার ট্রলার ডুবিতে ১৭ জনের মরদেহ উদ্ধার হলেও একজন নিখোঁজ থেকে যায়। বৃহস্পতিবার সকালে স্থানীয় লোকজন রাজালিকান্দায় মাছ ধরতে গেলে ইউসুফ আহমেদ এর বাড়ীর পিছনে পানিতে ভাসমান অবস্থায় একটি মরদেহ দেখে উদ্ধার করে পুলিশে খবর দেয়।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মরদেহের নাম সনাক্ত হয়নি। মদন থানার এস আই নূরুল আমিন জানান, ট্রলার ডুবির ঘটনায় রাকিব নামের একজন নিখোঁজ ছিল। স্থানীয় লোকজন একজনের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় জানিয়েছে। আমি সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনা স্থলে যাচ্ছি।

ঢাকা, ০৬ আগস্ট (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।