জ্বর নিয়ে শ্বশুরবাড়িতে জামাই, পালালেন শাশুড়িসহ ৫ সদস্য


Published: 2020-04-09 10:53:52 BdST, Updated: 2020-05-29 00:47:16 BdST

লাইভ প্রতিবেদকঃ প্রতিদিন যেমন বাড়ছে প্রাণঘাতি করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা ঠিক তেমনই মানুষের মনে দানা বাঁধছে আতঙ্ক। ক্রমশ বড় আকার ধারণ করছে করোনা আতঙ্ক। এবার এই আতঙ্ক থেকেই ঘটেছে এক অপ্রীয় সত্যি ঘটনা। রাতে শরীরে জ্বর নিয়ে নারায়ণগঞ্জ থেকে শ্বশুরবাড়িতে আসেন মেয়ের জামাই (৩৮)। আর সকালেই ওই বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যান শাশুড়িসহ বাড়ির ৫ জন সদস্য। এ ঘটনা এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে সবার মাঝে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে।

দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলায় বুধবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. সোলায়মান হোসেন মেহেদি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বুধবার সকালে বেড়াতে আসা ওই জামাইসহ ৫ জনের নমুনা সংগ্রহ করেছে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকরা। সেই সঙ্গে আশপাশের ৪ বাড়িকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

এ বিষয়ে স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জানান, শরীরে জ্বর, গলাব্যথা, সর্দি নিয়ে ওই ব্যক্তি (৩৮) সোমবার রাতের বেলা নারায়ণগঞ্জ থেকে তার শ্বশুরবাড়িতে আসেন। স্থানীয় গ্রামবাসীর দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে ওই ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এছাড়াও করোনা সন্দেহে উপজেলার বেশ কয়েকটি স্থান থেকে ৫ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে এবং ওই বাড়ির লোকগুলোকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সোলায়মান হোসেন মেহেদি জানান, এরই মধ্যে বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা ইউনিটে আইসোলেশনে ৩ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন। তাদের নমুনা সংগ্রহ করে করেনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছিল। তবে পরীক্ষার রিপোর্টে নেগেটিভ এসেছে।

জ্বর নিয়ে শ্বশুরবাড়িতে জামাই, পালালেন শাশুড়িসহ ৫ সদস্য

লাইভ প্রতিবেদকঃ প্রতিদিন যেমন বাড়ছে প্রাণঘাতি করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা ঠিক তেমনই মানুষের মনে দানা বাঁধছে আতঙ্ক। ক্রমশ বড় আকার ধারণ করছে করোনা আতঙ্ক। এবার এই আতঙ্ক থেকেই ঘটেছে এক অপ্রীয় সত্যি ঘটনা। রাতে শরীরে জ্বর নিয়ে নারায়ণগঞ্জ থেকে শ্বশুরবাড়িতে আসেন মেয়ের জামাই (৩৮)। আর সকালেই ওই বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যান শাশুড়িসহ বাড়ির ৫ জন সদস্য। এ ঘটনা এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে সবার মাঝে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে।

দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলায় বুধবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. সোলায়মান হোসেন মেহেদি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বুধবার সকালে বেড়াতে আসা ওই জামাইসহ ৫ জনের নমুনা সংগ্রহ করেছে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকরা। সেই সঙ্গে আশপাশের ৪ বাড়িকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

এ বিষয়ে স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জানান, শরীরে জ্বর, গলাব্যথা, সর্দি নিয়ে ওই ব্যক্তি (৩৮) সোমবার রাতের বেলা নারায়ণগঞ্জ থেকে তার শ্বশুরবাড়িতে আসেন। স্থানীয় গ্রামবাসীর দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে ওই ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এছাড়াও করোনা সন্দেহে উপজেলার বেশ কয়েকটি স্থান থেকে ৫ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে এবং ওই বাড়ির লোকগুলোকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সোলায়মান হোসেন মেহেদি জানান, এরই মধ্যে বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা ইউনিটে আইসোলেশনে ৩ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন। তাদের নমুনা সংগ্রহ করে করেনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছিল। তবে পরীক্ষার রিপোর্টে নেগেটিভ এসেছে।

ঢাকা, ০৯ এপ্রিল (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।