করোনা সন্দেহে চিকিৎসা না পেয়ে নওগাঁয় এক যুবকের মৃত্যু


Published: 2020-03-29 12:45:58 BdST, Updated: 2020-06-04 12:59:27 BdST

নওগাঁ লাইভঃ নওগাঁর রানীনগরের এক যুবক জ্বর ও কাশিতে আক্রান্ত হয়ে শনিবার দিবাগত রাতে রাজশাহী মেডিকেল কলেজে (রামেক) মারা গেছেন। পরিবারের অভিযোগ করোনা ভাইরাস সন্দেহে সঠিক চিকিৎসা না পেয়ে মারা গেছেন তিনি। পরে রাতেই তার মৃতদেহ গ্রামের বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। রোববার সকাল থেকে তার দাফন প্রক্রিয়া চলছে।

নিহতের পরিবার জানিয়েছে, তিনি দীর্ঘদিন ধরে ঢাকায় একটি কাপড়ের দোকানে কাজ করতেন। শনিবার সকালে প্রচণ্ড জ্বর আর কাশি নিয়ে অসুস্থ অবস্থায় ঢাকা থেকে নওগাঁয় আসেন। এ সময় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে স্থানীয় ইউপি মেম্বার ও গ্রামের কিছু লোক তাকে গ্রামে প্রবেশ করতে দেননি।

পরিবারে অভিযোগ, পরে তাকে চিকিৎসার জন্য আদমদীঘি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে চিকিৎসা না করে ফিরিয়ে দেয়া হয়। এরপর নিয়ে এসে ভেটি কমিউনিটি ক্লিনিকের বারান্দায় রাখা হয়। পরে বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অবগত করা হলে রানীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়। অবস্থা বেগতিক দেখে চিকিৎসকরা তাকে নওগাঁ সদর হাসপাতালে পাঠান। অবশেষে তিন হাসপাতাল ঘুরে রামেকে গিয়ে মারা যান তিনি।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মোফাজ্জল হোসেন বাচ্চু বলেন, জ্বর-সর্দির খবর পাওয়ার পর তার পরিবারকে বলেছিলাম চিকিৎসকের প্রতিবেদন নিয়ে গ্রামে আসতে। প্রতিবেদনে কোনো সমস্যা না থাকলে গ্রামে আসবে, আর সমস্যা থাকলে আসার দরকার নেই। গ্রামবাসীর কথা ভেবেই এমন সীদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল।

রানীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আল মামুন বলেন, ওই যুবক করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যাননি। তিনি যে করোনা ভাইরাসে মারা যাননি মৃত্যু সনদে চিকিৎসক তা নিশ্চিত করে দিয়েছেন। তাই লাশ দাফনে কোনো সমস্যা নেই।

ঢাকা, ২৯ মার্চ (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//টিআর

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।