ভিসি নাসির উদ্দিনকে প্রত্যাহারের সুপারিশ


Published: 2019-09-29 17:53:14 BdST, Updated: 2019-10-21 16:44:03 BdST

লাইভ প্রতিবেদকঃ নানান আলোচনা ও সমালোচনার পর অবশেষে বন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) ভিসি খোন্দকার নাসির উদ্দিনকে প্রত্যাহারের সুপারিশ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)।

ও্তই ভিসির বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগুলো প্রমাণিত হয়েছে উল্লেখ করে ভিসির বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থার সুপারিশসহ মোট তিনটি সুপারিশ করা হয়েছে।

জানাগেছে গত ২৩ সেপ্টেম্বর মন্ত্রণালয় চিঠি পাওয়ার পরদিন ২৪ সেপ্টেম্বর ইউজিসির সদস্য অধ্যাপক ড. মো. আলমগীরকে আহ্বায়ক করে পাঁচ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছিল।

ওই কমিটির অন্য ৪জন সদস্য হলেন- ইউজিসির সদস্য অধ্যাপক ড. দিল আফরোজা বেগম, সদস্য অধ্যাপক ড. সাজ্জাত হোসেন, পরিচালক (পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়) মো. কামাল হোসেন এবং আইন শাখার উপপরিচালক মৌলি আজাদ।

তদন্ত কমিটি গঠনের পাওয়ার পর ২৫ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় সরেজমিন পরিদর্শনে যান। সেখানে গিয়ে দুদিন অবস্থান করেন এবং ২৭ সেপ্টেম্বর ঢাকায় ফিরে এসে ওই দিনই তদন্ত প্রতিবেদন তৈরি করে ইউজিসির কাছে জমা দেয়া হয়।

ওই প্রতিবেদনে ভিসি খোন্দকার নাসির উদ্দিনের বিরুদ্ধে তিনটি সুপারিশ করা হয়েছে। সেগুলো হলো- ভিসি খোন্দকার নাসির উদ্দিনের বিরুদ্ধে যে সব অভিযোগ উঠেছে তার প্রমাণ হয়েছে, তিনি (ভিসি খোন্দকার নাসির উদ্দিন) বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালনায় যোগ্য নয়, তাই তাকে ভিসি পদ থেকে সরিয়ে দেয়া এবং তার বিরুদ্ধে আনা বিভিন্ন অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় সেসব বিষয়ে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ।


ওই কমিটির সদস্য অধ্যাপক ড. দিল আফরোজা বেগম জানান, আমরা দ্রুততার সাথে তদন্ত শেষ করেছি। যেহেতু ওই বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি অস্থিতিশীল পরিস্থিত তৈরি হয়েছে, শিক্ষার্থীরা নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে -এসব বিষয় বিবেচনা করে আমরা দ্রুততার সাথে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছি।

তিনি আরও বলেন, আমাদের কাছে মনে হয়েছে বর্তমান ভিসি (খোন্দকার নাসির উদ্দিন) একজন দায়িত্বহীন। তিনি দুর্নীতিবাজ ও অনিয়মকারী। ওই ভিসি নৈতিকস্খলনজনিত অপরাধ করেছেন। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া দরকার। এধরনের লোকের কারণে সমাজ ও রাষ্ট্র ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

ঢাকা, ২৯ সেপ্টেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।