১৩ দিন ধরে আমরণ অনশনে শিক্ষকরা, শিশুরাও অসুস্থ


Published: 2019-07-12 19:30:45 BdST, Updated: 2019-07-20 22:42:59 BdST

লাইভ প্রতিবেদক: টানা ২৭ দিন ধরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের পাশের ফুটপাতে অবস্থান করছেন আন্দোলনরত শিক্ষকরা। এই ২৭ দিনের মধ্যে গত ১৩ দিন ধরে আমরণ অনশন করছেন আন্দোলনরত বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা।

জানা গেছে, তৃতীয় ধাপেও জাতীয়করণ থেকে বাদ পড়া বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকারা আমরণ অনশন করছেন। তাদেরই একজন নোয়াখালীর হাতিয়া থানার নলচিরার বাসিন্দা শিপ্রা রানী দে। তার সঙ্গে প্রায় দুই বছরের শিশুসন্তানও ২৭ দিন ধরে রয়েছে এখানে। এভাবে অবস্থান করাতে এই শিক্ষিকার কোলের শিশু অসুস্থ হয়ে পড়েছে। বৃহস্পতিবার রাত থেকে তার প্রচণ্ড জ্বর। শুক্রবার সকালে বমি করেছে শিপ্রা রানীর কোলের সন্তান।

নলচিরায় আল-আমিন বাজার বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ১৩ বছর ধরে শিক্ষকতা করেন তিনি। তবে এখন পর্যন্ত এক টাকাও বেতন পাননি। জাতীয়করণ হলে বেতন-ভাতা পাবেন। এই জাতীয়করণের দাবিতে তিনি কোলের সন্তানকে নিয়ে প্রেস ক্লাবের সামনে অবস্থান করছেন।

বাংলাদেশ বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির মহাসচিব মো. কামাল হোসেন এবং সভাপতি মো. মামুনুর রশিদ খোকন জানান, ২৭ দিনের আন্দোলনে এখন পর্যন্ত মোট ২১১ জন শিক্ষক অসুস্থ হয়েছেন। এর মধ্যে তিনজন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে বাড়ি চলে গেছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশ্যে এ শিক্ষিকারা বলেন, ‘আজকে ২৭টা দিন ধরে এখানে। আর কত দিন থাকব প্রধানমন্ত্রী? আপনি তো সবাইকে খাবার দিচ্ছেন, মা। আমাদের কেন খাবার দিচ্ছেন না, মা?’

সংগঠনটির সহ-সভাপতি ফিরোজ উদ্দিন বলেন, ২০১৩ সালের ৯ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের সব উপজেলা ও জেলায় অবস্থিত বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের কথা জানান। নিজ কার্যালয়ের চামেলী হলে প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, ২০১২ সালের ২৭ মে’র আগের বেসরকারি বিদ্যালয়গুলো জাতীয়করণের আওতায় আনা হবে। তাই বাংলাদেশে কোনো বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থাকবে না। তিন ধাপে বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করা হবে।

ফিরোজ আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রীর এমন ঘোষণার পরও মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তাদের অবহেলার কারণে আমরা জাতীয়করণ থেকে বঞ্চিত রয়েছি। ২০১২ সালের ২৭ মে’র আগের বিদ্যালয়গুলো জাতীয়করণে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি।


ঢাকা, ১২ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।