১৯ জেলায় সরকারি চাকুরেদের ছুটি বাতিল


Published: 2018-10-11 19:28:45 BdST, Updated: 2018-10-19 05:12:43 BdST

লাইভ প্রতিবেদক: ঘুর্ণিঝড় তিতলি মোকাবেলায় সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন ত্রান মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া। তিনি বলেন, সব জেলায় কন্ট্রোল রুম খোলা রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সব কর্মকর্তার সাপ্তাহিক ছুটি বাতিল করা হয়েছে।বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন মন্ত্রী।

ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’র কারণে উপকূলীয় ১৯ জেলার সব সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া।

এসময় মন্ত্রী আরো বলেন, ‘আল্লাহর কাছে শুকরিয়া যে ঘূর্ণিঝড়টি সকালে ভারতের আঘাত হেনেছে। আমাদের এখানে আঘাত হানার আশঙ্কা ছিল। ঘূর্ণিঝড় তিতলির কারণে আমরা ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছি।’

আবহাওয়া পূর্বাভাস থেকে জানা যায়, বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় তিতলি বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে ভারতের ওড়িষ্যা ও অন্ধ্র প্রদেশের উপকূলে আছড়ে পড়েছে।

গত কয়েকদিন ধরে বঙ্গোপসাগরে ঘুরতে থাকা গভীর নিম্নচাপটি শক্তি বাড়িয়ে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়ে ওড়িষ্যা অতিক্রম করেছে। তিতলি এখন যাচ্ছে পশ্চিমবঙ্গের সমুদ্র উপকূলের দিকে।

এর প্রভাবে বাংলাদেশের উপকূলীয় কয়েকটি জেলাও আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কার কথা জানিয়েছিল আবহাওয়া দফতর। এর মাঝে কক্সবাজারের উপকূলও তালিকায় ছিল। কিন্তু ঘূর্ণিঝড়টি ভারতে আঘাত হানলেও রক্ষা পেয়েছে কক্সবাজারের কুতুবদিয়া, মহেশখালী, পেকুয়া, চকরিয়া ও সদরের উপকূলীয় এলাকা।

 


ঢাকা, ১১ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।