সাংবাদিক মুজিব মাসুদের বাবার ইন্তেকাল


Published: 2018-09-23 17:41:20 BdST, Updated: 2018-10-16 01:53:43 BdST

লাইভ প্রতিবেদক: যুগান্তরের বিশেষ প্রতিনিধি মুজিব মাসুদের বাবা মোস্তাফিজুর রহমান আর নেই (ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্নইলাহি রাজিউন)। শনিবার চট্টগ্রামের ম্যাক্স হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

মৃতু্যকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৬ বছর। দীর্ঘদিন থেকে তিনি কিডনি ও হৃদরোগ ভুগছিলেন। আগামীকাল রোববার বাদ জোহর সন্দ্বীপে পৈত্রিক বাড়িতে তাঁকে দাফন করা হবে।

তার মৃত্যুতে শোক ও পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে বিবৃতি দিয়ে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ), ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্র্যাব) এবং চিটাগং জার্নালষ্টি ফোরাম।

বিবৃতিতে মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেছেন এসব সংগঠনের নেতারা।

গত ১৭ সেপ্টেম্বর নিজবাড়িতে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ম্যাক্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি ঘটলে ওইদিনই তাকে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়।

মোস্তাফিজুর রহমান ১৯৪৩ সালের ১০ ডিসেম্বর চট্টগ্রাম জেলার সন্দ্বীপ থানাধীন মুছাপুর গ্রামের সম্ভ্রান্ত ভুইয়া পরিবারে জন্ম গ্রহন করেন।

১৯৬২ সালে তিনি শিক্ষক হিসাবে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চাকরি শুরু করেন। ১৯৭০ সালে তিনি প্রধান শিক্ষক হিসাবে পদোন্নতি পান।

দীর্ঘদিনের শিক্ষকতা শেষে ২০০০ সালে তিনি চাকরি থেকে অবসর নেন। ২০০২ সালে তিনি পবিত্র হজ পালন করেন। তিনি স্ত্রী, ৪ ছেলে ও ৩ মেয়েসহ অসংখ্যা গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। তার বড় ছেলে মিজানুর রহমান উত্তর সন্দ্বীপ কলেজের পিন্সিপ্যাল।

ব্যক্তিগত জীবনে মোস্তাফিজুর রহমান বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ছিলেন।

এছাড়াও তিনি লেখালেখির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। এ পর্যন্ত তিনি দুটি বই লিখেছেন। এগুলো হল- আমার হজ আমার উমরাহ এবং ভ্রমন কাহিনী আমেরিকার পথে পথে।

ক্যাম্পাসলাই পরিবারে পক্ষ থেকে গভীর শোক ও সমবেদনা জানিয়েছে। একই সঙ্গে মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করা হয়।

 

ঢাকা, ২৩ সেপ্টেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।