গান গাইলেন শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী


Published: 2018-08-09 22:56:39 BdST, Updated: 2018-08-19 23:54:51 BdST
লাইভ প্রতিবেদক: সচিবালয়ে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ সচিবালয় কর্মকর্তা ও কর্মচারী ঐক্য পরিষদের আলোচনা ও দোয়া অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে গান গাইলেন শিক্ষা (কারিগরি ও মাদরাসা বিভাগ) প্রতিমন্ত্রী কাজী কেরামত আলী । বিভিন্ন অনুষ্ঠানে মাঝে মাঝেই গান গেয়ে থাকেন।
 
বৃহস্পতিবার  প্রধান অতিথি সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের আগে সচিবালয়ের চার নম্বর ভবনের পেছনে তৈরি করা মঞ্চের ডায়াসে বক্তব্য দিতে আসেন কাজী কেরামত আলী।
 
বক্তব্যের শেষ পর্যায়ে তিনি বলেন, আমি একটা গান গাইব। বলেই শুরু করেন- ‘ও আমি স্বপ্নে দেখেছি বঙ্গবন্ধুকে/ওই টুঙ্গী পাড়ার কবর থেকে বলছে ডেকে/আমি তোদের কাছে রেখে এসেছি আমার শেখ হাসিনাকে/আমি তোদের কাছে রেখে এসেছি আমার শেখ রেহানাকে/তোরা ওদের মাতা-পিতা তোরা ওদের ভাই/তোরা ছাড়া ওদের আর তো যাওয়ার জায়গা নাই/তোরা পাশে না দাঁড়ালে দাঁড়াবে আর কে/বলো দাঁড়াবে আর কে/আমি তোদের কাছে রেখে এসেছি...।’
 
তারপর তিনি গেয়ে ওঠেন- ‘ওরে হাসিনা তোমার চিন্তা নাই/ওরে হাসিনা তোমার চিন্তা নাই/কে কয় তোমার ভাই মইরাছে, আমরা তোমার ভাই।’ এইটুকু গাওয়ার মধ্য দিয়েই বক্তব্য শেষ করেন প্রতিমন্ত্রী। প্রতিমন্ত্রীর গান গাওয়ার ভঙ্গি সবার নজর কাড়ে।
 
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বক্তব্যে বলেন, ‘এখানে আমাদের একজন জনপ্রিয় প্রতিমন্ত্রী রয়েছেন, আজ আবার জানতে পারলাম উনি একজন গায়ক। ভালো গান গেয়ে থাকেন, আমাদের শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পদ্মা পাড়ের মানুষ।’
 
এ বছরের ৩ জানুয়ারি মন্ত্রিসভার রদবদলের সময় রাজবাড়ী-১ আসনের সংসদ সদস্য কাজী কেরামত আলী শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের প্রতিমন্ত্রী নিয়োগ পান। গত ২৮ ফেব্রুয়ারি বগুড়ার শেরপুর শহীদিয়া আলীয়া মাদরাসা মাঠে আয়োজিত গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যের মধ্যেও গেয়ে উঠেন- ‘আমার সাধ না মিটিল, আশা না পুরিল...সকলই ফুরায়ে যায় মা।’
 
৩১ মার্চ মাদারীপুরের শিবচরে ভদ্রাসনের জিসি একাডেমির শতবর্ষপূর্তি উৎসবে অংশ নিয়ে গান পরিবেশন করেন। সেখানে তার ‘দে দে পাল তুলে দে’ গান গেয়ে তিনি মঞ্চ মাতিয়ে তোলেন। কাজী কেরামত আলী ব্যবসার পাশাপাশি আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। তিনি ১৯৯০ সাল থেকে এ পর্যন্ত রাজবাড়ী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।
 
শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে দেয়া কাজী কেরামত আলীর জীবন বৃত্তান্ত থেকে জানা গেছে, তিনি এক কন্যা সন্তানের জনক। গান গাওয়া, গান শোনা, ফুটবল ও ব্যাডমিন্টন খেলা তার শখ।
 
 
 
 
ঢাকা, ০৯ আগস্ট (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।