দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডের ১৬ কলেজের ফলাফল শূন্য


Published: 2018-07-19 20:49:33 BdST, Updated: 2018-08-18 09:11:26 BdST

দিনাজপুর লাইভ: দিনাজপুর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের অধীনে এইচএসসি পরীক্ষায় ১৬টি কলেজের কেউই পাশ করেনি। এসব কলেজের ফলাফল শূন্য। এবারে দিনাজপুর বোর্ডের এইচএসসি পরীক্ষায় ৬৩৩টি কলেজ অংশগ্রহণ করে। বৃহস্পতিবার দুপুরে দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. তোফাজ্জুর রহমান ফলাফল ঘোষণার সময় সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

শূন্য ফলাফল করা ১৬টি কলেজের মধ্যে রয়েছে গাইবান্ধা জেলার সাঘাটা উপজেলার জুমারবাড়ী মহিলা কলেজ। এ কলেজের ১৯ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছিলেন। একই উপজেলার কামালের পাড়া কলেজ। এ কলেজের ৯ জনের মধ্যে কেউই পাশ করতে পারেনি। নীলফামারী সদর উপজেলার রামগঞ্জ কলেজ, কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর উপজেলার থেতরাই এজে কলেজ, লালমনিরহাট জেলার অদিতমারি উপজেলার কুমড়িরহাট এসসি স্কুল এন্ড কলেজ, নামুরী স্কুল এন্ড কলেজ, মাহিশা শাহার কলেজ, রংপুর পীরগঞ্জের তাম্বুলপুর কলেজ, রংপুর মিঠাপুকুরের মির্জাপুর আদর্শ স্কুল এন্ড কলেজ, গাইবান্ধা সুন্দরগঞ্জের শুভগঞ্জ মহিলা আদর্শ কলেজ, লালমনিরহাট কালিগঞ্জের বারজান নয়া কলেজ, ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীর রতনাই বেগুলাবাড়ী স্কুল এন্ড কলেজ, রংপুর পীরগঞ্জের মহিয়শী বেগম রোকেয়া কলেজ, কুড়িগ্রাম বুরুঙ্গামারীর ধুলডাঙ্গা স্কুল এন্ড কলেজ, দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার বেপারীতলা আদর্শ কলেজ এবং ঠাকুরগাঁও পীরগঞ্জের পীরগঞ্জ কলেজিয়েট স্কুল এন্ড কলেজ। এসব কলেজের প্রতিটিতে ১ জন হতে ৬ জন পর্যন্ত শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। এদের মধ্যে একজনও পাশ করতে পারেনি।

দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. তোফাজ্জুর রহমান জানান, শূন্য ফলাফল করা এসব কলেজের বিরুদ্ধে আইননানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

উল্লেখ্য, দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডে শূন্য ফলাফল কলেজের সংখ্যা ছিল ২০১০ সালে ৫টি, ২০১১ সালে ৭টি, ২০১২ সালে ৫টি, ২০১৩ সালে ৭টি, ২০১৪ সালে ৭টি, ২০১৫ সালে ৫টি, ২০১৬ সালে ৮টি এবং ২০১৭ সালে ১৬টি। এবারে দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডের অধীনে ১৮৯টি কেন্দ্রের মাধ্যমে ৮টি জেলার ৬৩৩টি কলেজ পরীক্ষায় অংশগ্রহন করে।

 


ঢাকা, ১৯ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।