বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক যখন মেস মালিক; অমানবিক আচারণে শিক্ষার্থী


Published: 2020-06-28 15:27:53 BdST, Updated: 2020-07-11 16:10:57 BdST

মুশফিকুর রহিম স্বপন, জাককানইবিঃ বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে বন্ধ রয়েছে দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। সেই সাথে বন্ধ হয়ে গেছে শিক্ষার্থীদের টিউশন সহ টাকা উপার্জনের ক্ষেত্র।

ময়মনসিংহের ত্রিশালে অবস্থিত জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাককানইবি) ফোকলোর বিভাগের শিক্ষার্থী মজনু। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার অনিশ্চয়তা জেনে মেস ছাড়তে মেস থেকে নিজস্ব মালামাল নিতে বৃহস্পতিবার (২৫জুন) গ্রামের বাড়ী বগুড়া থেকে ময়মনসিংহের ত্রিশালে আসেন সেই শিক্ষার্থী।

কিন্তু তাৎক্ষণিক ভাড়া দিতে না পারায় মেসে প্রবেশ করতে দেয়নি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফোকলোর বিভাগের অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর ও ত্রিশালের ক্ষণিকা ছাত্রাবাসের মালিক ড. মো. সাইফুল ইসলাম।

করোনা চলাকালীন চার মাসের ভাড়া পরিশোধ করতে না পারলে মেসে ঢুকতে না দেয়ার জন্যে মেসের কেয়ারটেকারকে নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানায় অভিযোগকারী শিক্ষার্থী যার সত্যতা নিশ্চিত করেছে মেসের কেয়ারটেকার আব্দুল আজিজ।

অস্বচ্ছলতার কারনে মেস ছাড়তে গিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকের বাধার মুখে পড়ে মজনু। তিনি এই বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব পেইজে মজনুর সাথে ঘটে যাওয়া কাহিনী তুলে ধরে তার পোস্টে।

মেস মালিক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক ড. মো. সাইফুল ইসলামকে ফোন দিয়ে অর্থনৈতিক সমস্যার কারনে শিক্ষার্থী মেস ছাড়ার কথা বললে শিক্ষক বলেন পুরো টাকা পরিশোধ করে জিনিস নিয়ে যাও তার আগে নয়। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন,স্থানীয় প্রশাসন ও মেস মালিকদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ৩৩ শতাংশ ভাড়া মওকুফ এর কথা বললে তিনি বলেন এটা কোনভাবে সম্ভব নয়। আমি তোমায় পড়ে জানাচ্ছি।

মালিককে না জানিয়ে রাতে কেয়ারটেকার শিক্ষার্থী মজনুকে থাকতে দেয় পরবর্তীতে মজনু নামের শিক্ষার্থী পরদিন ২৬ জুন বিকাশে টাকা উত্তোলন করতে গেলে মেস মালিক সেই তালা পরিবর্তন করে ফেলে।

পুরো ভাড়া না দিলে কোনভাবেই যেতে দিতে না করেছে স্যার এমনটাই জানিয়েছে আব্দুল আজিজ। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. উজ্জ্বল কুমার প্রধান এর মধ্যস্ততায় শিক্ষার্থী মজনু ৬৭ শতাংশ ভাড়া পরিশোধ করে মেস ছেড়ে দেয়।

এ বিষয়ে প্রক্টর ড. উজ্জ্বল কুমার প্রধান বলেন, আমি অভিযোগকারী শিক্ষার্থীকে বলেছি নোটিশ মোতাবেক ৬৭ শতাংশ ভাড়া পরিশোধ করে মেছ ছেড়ে দিতে।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত মেস মালিকের কাছে জানতে চাইলে তিনি এ প্রসঙ্গ এড়িয়ে যান। পূর্বেও এ ধরনের ঘটনার অভিযোগ রয়েছে এই শিক্ষকের বিরুদ্ধে।

ঢাকা, ২৮ জুন (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।