প্রধান শিক্ষিকার হাত ভেঙ্গে দিল সাবেক ইউপি সদস্য


Published: 2019-08-29 20:43:38 BdST, Updated: 2019-11-20 01:15:25 BdST

জামালপুর লাইভ: প্রাইমারি স্কুলের প্রধান শিক্ষিকার হাত ভেঙ্গে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে সাবেক এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে। জামালপুরের বকশীগঞ্জে সাজিমারা সরকারি প্রাইমারি স্কুলের প্রধান শিক্ষিকার হাত-পা ভেঙ্গে দেয় সাবেক ইউপি সদস্য হামিদুর রহমান।

আহত প্রধান শিক্ষিকা আফরোজা সুলতানা বীণা বকশীগঞ্জ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার বিষয়ে জানা গেছে, স্কুলের পরিচালনা কমিটির সভাপতি পদে প্রার্থী হতে চায় হামিদুর। নিয়ম অনুযায়ী অভিভাবক হিসেবে শিক্ষার্থীর সঙ্গে হামিদুর রহমানের সম্পর্কের বিস্তারিত বর্ণনা জমা দেয় সে। পরে স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা জানতে পারেন যে, শিক্ষার্থীর সঙ্গে হামিদুরের কোন আত্মীয়তার সম্পর্ক নেই। একই গ্রামের হাবিবুর রহমান বইতুল্লাহর ছেলে রাফিউল ইসলাম রাফিকে নিজের ছেলে পরিচয় দিয়ে স্কুলে ভর্তি করায়।

বিষয়টি সমাধানের জন্য প্রধান শিক্ষিকা স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম সাত্তারের কাছে একটি প্রত্যয়নপত্র চান। ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম সাত্তার তার প্রত্যয়নপত্রে উল্লেখ করেন, স্কুলছাত্র রাফিউল ইসলাম রাফি হামিদুর রহমান ফর্সার সন্তান নয়। প্রকৃতপক্ষে যে জন্ম সনদটি দাখিল করেছে সেই জন্ম সনদটি ভুয়া বলে উল্লেখ করেন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম।

পরে প্রার্থী হতে পরবেনা জেনে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় হামিদুর রহমান ফর্সা বিদ্যালয়ে ঢুকে শিক্ষিকার ওপর হামলা চালায়। এসময় ফর্সা স্কুলে এসে একটি লোহার রড নিয়ে প্রধান শিক্ষিকার কক্ষে ঢুকে তালাবদ্ধ করে তাকে বেদম পেটাতে থাকে। পরে অন্যান্য শিক্ষক ও গ্রামবাসী এসে প্রধান শিক্ষিকাকে উদ্ধার করে বকশীগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

ঢাকা, ২৯ আগস্ট (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।