নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের সেকশন অফিসারের ধর্ষণে অন্ত:সত্ত্বা গৃহকর্মী!


Published: 2019-07-06 22:02:38 BdST, Updated: 2019-08-22 22:26:40 BdST

ময়মনসিংহ লাইভ: জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাককানইবি) সেকশন অফিসার সাইদুর রহমানের বিরুদ্ধে গৃহকর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ওই গৃহকর্মী অন্ত:সত্ত্বা হয়ে গেলে বিষয়টি ১ লাখ ২০ হাজার টাকায় রফাদফা করেছেন তিনি। ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে ওই ঘটনা নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে।

জানা যায়, বুধবার রাতে রাজীবপুর ইউনিয়ন পরিষদে ধর্ষণের ওই ঘটনা নিয়ে এক শালিস হয়েছে। ওই কিশোরী জানায়, দেবস্থান গ্রামের জহুর আলীর ছেলে সাইদুর রহমান জাতীয় কবি কাজী নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে সেকশন অফিসার হিসেবে কর্মরত। তিনি সেখানেই বসবাস করেন। বাসায় কাজ করার জন্য তাকে তার বাবা আড়াই বছর পূর্বে ওই বাসায় দেন।
মাসে তিন হাজার টাকার বেতন সাব্যস্ত করে কাজ করছে সে। বাাসায় থাকা অবস্থায় তাকে প্রায়ই যৌন নির্যাতন করতেন সাইদুল। একপর্যায়ে অন্ত:সত্তা হয়ে পড়ে ওই কিশোরী।

এব্যাপারে কিশোরীর বাবা বলেন, আমি স্থানীয় লোকজনের কাছে এর প্রতিকার চাইলে তারা ঘটনাটি স্থানীয়ভাবে আপোষ মীমাংসার উদ্যোগ নেন। শালিসে সিদ্ধান্ত হয় মেয়ের বিয়ে বাবাদ ১ লাখ ২০ হাজার টাকা সাইদুলের কাছ থেকে নিয়ে দেয়া হবে।

ওই সালিসে বর্তমান ও সাবেক চেয়ারম্যানসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি এবং মেয়ের বাবা মা উপস্থিত ছিলেন। পরদিন ওই টাকা মেয়ের বাবার কাছে বুঝিয়ে দেন রাজীবপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত ওই কর্মকর্তা সাইদুলের মোবাইলে বারবার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

ঢাকা, ০৬ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।