বাকৃবি: দেশীয় কার্পের সঙ্গে মিশ্র চাষে অধিক মাছ উৎপাদন


Published: 2018-05-31 21:31:29 BdST, Updated: 2018-09-22 23:34:16 BdST

বাকৃবি লাইভ: পুকুরে দেশীয় কার্পের (রুই এবং কাতলা) সঙ্গে শিং এবং কৈ মাছের মিশ্র চাষে প্রয়োজনের অর্ধেক খাবার সরবরাহ করেই অধিক মাছ উৎপাদন সম্ভব বলে দাবী করেছেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) একদল গবেষক।

পুকুরে কম খাবার সরবরাহের ফলে কৃষকদের মাছ উৎপাদন ব্যয় যেমন কমে যাবে তেমনি বাড়বে উৎপাদন। এছাড়াও অধিক খাবার পুকুরের পরিবেশও নষ্ট করবে না। বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের সম্মেলন কক্ষে‘ মাছের উৎপাদন বৃদ্ধি বিষয়ক এক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। এতে এসব তথ্য জানান গবেষণার প্রধান গবেষক প্রফেসর ড. শাহ্রোজ মাহেন হক।

তিনি আরও জানান, অধিক উৎপাদনের আশায় মৎস্যচাষীরা প্রায়ই তাদের পুকুরে অধিক খাবার দিয়ে থাকেন। কিন্তু অধিক খাবার যেমন মাছের জন্য ক্ষতিকর তেমনি পুকুরের পরিবেশের জন্যও ক্ষতিকর। এছাড়াও খাবারের মূল্য বেশি হওয়ায় কৃষকদের উৎপাদন খরচও বেশি হয়। তাই দেশীয় কার্পের সঙ্গে শিং অথবা কৈ মাছের মিশ্র চাষে প্রয়োজনের অর্ধেক খাবার সরবরাহ করেই কাঙ্খিত উৎপাদন পাবেন মৎস্যচাষীরা।

মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. গিয়াস উদ্দিন আহমদের সভাপতিত্বে কর্মশালায় মুল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন প্রধান গবেষক প্রফেসর ড. শাহ্রোজ মাহেন হক। কর্মশালায় ময়মনসিংহ অঞ্চলের বিভিন্ন অঞ্চলের মৎস্যচাষী, বিভাগীয় শিক্ষক, আমন্ত্রিত অতিথিগণ উপস্থিত ছিলেন।

 

 


ঢাকা, ৩১ মে (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।