রামেকের ব্যবহৃত পিপিই বিক্রি, গণধোলাই খেল দুই সুইপার


Published: 2020-04-21 16:48:22 BdST, Updated: 2020-09-18 19:31:44 BdST

রাবি প্রতিবেদকঃ রামেকের ব্যবহৃত পিপিই বিক্রি করতে এসে স্থানীয় জনতার হাতে গণধোলাই খেয়ে পালিয়েছে দুইজন পরিছন্ন-কর্মী (সুইপার)। সোমবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে নগরীর চন্দ্রিমা থানাধিন শিরোইল কলোনী বিশ্ব-গোডাউন মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।

পরিছন্ন-কর্মীরা (সুইপার) হলেন, হরিলালের ছেলে কুঞ্জুলাল, ও কালুয়া বাসপারের ছেলে রনি বাসপর। তারা উভয়ই রামেক হরিজন পল্লির বাসিন্দা।

স্থানীয়রা জানায়, করোনাভাইরাস ভিতিকে কাজে লাগিয়ে রামেকের দুইজন পরিছন্ন-কর্মী সরকারী ভাবে বরাদ্দ রামেকের স্টাফদের ব্যবহৃত পিপিই বিক্রি করতে শিরোইল কলোনীতে আসেন। ওই সময় বিশ্ব-গোডাউনে সার বহনকারী ট্রাক নিয়ে আসা চালকদের নিকট ১৫০ টাকা মুল্যে পিপিই বিক্রি করেন তারা।

বিষয়টি স্থানীয়দের নজরে পড়লে তারা জড়ো হয়ে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করেন, কোথা থেকে পেলেন এসব সামগ্রী। জনগণের প্রশ্ন ধিরে ধিরে ভারি হতে থাকলে তারা স্বিকার করে বলেন, রামেকের স্টাফদের ব্যবহারের পর ফেলে দেয়া পিপিই গুলো তারা সংগ্রহ করেন। পরে তারা সেগুলো ধুয়ে পরিস্কার করে বিক্রি করছেন।

এ সময় বিক্ষুদ্ধ জনতা বলেন, এসব সামগ্রী থেকে করোনা ভাইরাস সংক্রমিত হতে পারে যা আমরা প্রতিদিনই টিভি ও সোসাল মিডিয়াতে দেখছি। ব্যবহৃত পিপিই গুলো রোগীর সংস্পর্শে থেকে আসার পর তা পুড়িয়ে ফেলা হচ্ছে। আর আপনারা ভাইরাস ছড়াতে এগুলো না পুড়িয়ে বিক্রি করতে এসেছেন। এ সময় ক্ষুদ্ধ জনতা তাদের গণধোলাই দেয়। পরিছন্ন কর্মীরা কোন উপায় না দেখে হাতে পায়ে ধরে পুলিশ আসার আগেই সুযোগ বুঝে পালিয়ে যায়।

স্থানীয়রা আরও বলেন, এর আগেও ওই দুই পরিছন্ন-কর্মী কয়েক জোড়াব পিপিই বিক্রি করে গেছেন চালকদের কাছে। পরে ব্যবহৃত ওই পিপিই পুলিশের সামনেই পুড়িয়ে ফেলেন তারা।

ঢাকা, ২১ এপ্রিল (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//আরআর//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।