প্রিন্সিপালের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার


Published: 2017-12-25 21:12:43 BdST, Updated: 2018-09-24 04:40:44 BdST

 

ব্রাহ্মণবাড়িয়া লাইভ: আবদুল মতিন আশরাফি (৩০) নামে প্রিন্সিপালের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। গত দুই মাস আগে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরে "লাইফ মেকার ইসলামিক কিডস ইউনিভার্সিটি" নামে একটি বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রিন্সিপাল হিসেবে যোগদান করেন। তিনি নবীনগর উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের আশ্রাফপুর গ্রামের শাহজাহান মিয়ার ছেলে। রবিবার দুপুর ১২টার দিকে পৌরশহরের হালদারপাড়া এলাকার একটি বাসা থেকে নিহতের ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

 

সদর মডেল থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) জিয়াউল হক জানান, মতিন হালদারপাড়া মহল্লার জনৈক করিম মিয়ার বাসায় ভাড়া থাকতেন। রবিবার সকালে অনেক ডাকাডাকি করেও মতিনের সাড়া-শব্দ না পেয়ে লাইফ মেকার ইসলামিক কিডস ইউনিভার্সিটির প্রতিষ্ঠাতা মাতিন আহমেদ থানা পুলিশে খবর দেন।

এরপর দুপুরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মতিনের ঘরের দরজা ভেঙে পাখার সঙ্গে গলায় গামছা পেঁচানো অবস্থায় তার মৃতদেহ উদ্ধার করে। তিনি আরো জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পেলেই মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

নিহত মতিনের বাবা শাহজাহান মিয়া সাংবাদিকদের জানান, মতিন মাদরাসার পড়া শেষ করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজ থেকে স্নাতক পাস করেছে। আসন্ন বিসিএস পরীক্ষায় অংশ নেয়ার কথা ছিল তার। গত নভেম্বরে সে লাইফ মেকার ইসলামিক কিডস ইউনিভার্সিটিতে প্রিন্সিপাল হিসেবে যোগদান করে।

মতিনের আত্মহত্যা করার কোনো কারণ ছিল না বলে জানান তিনি। তবে ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা মাতিন আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, মতিন আগামী জানুয়ারি মাস থেকে প্রিন্সিপাল পদে যোগদান করার কথা ছিল।

 

 

ঢাকা, ২৫ ডিসেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।