শিশুছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মাদরাসা শিক্ষক গ্রেপ্তার


Published: 2020-11-02 18:03:37 BdST, Updated: 2020-12-02 06:14:36 BdST

লাইভ প্রতিবেদকঃ বাঁশখালীর চাম্বল এলাকায় ফোরকানিয়া মাদ্রাসার ১১ বছর বয়সী এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়। ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত মাদ্রাসা শিক্ষক মোজাম্মেল হক ঘটনার পর থেকে পালিয়ে যান।

রোববার (১ নভেম্বর) রাতে তাকে কুমিল্লার দেবীদ্বার থেকে গ্রেফতার করে র‌্যাব-৭। মোজাম্মেল হক স্থানীয় ফোরকানিয়া মাদরাসার শিক্ষক। ওই মাদরাসার মসজিদের মক্তবে পড়ত শিশুটি।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন র‌্যাব-৭ এর এএসপি মাহমুদুল হাসান মামুন। তিনি জানান, পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদমাধ্যমে র‌্যাব জানতে পারে, চট্টগ্রাম জেলার বাঁশখালী থানাধীন চাম্বল এলাকায় ১১ বছরের একটি শিশু একাধিকবার ধর্ষণের শিকার হয়।

এ ঘটনায় ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে স্থানীয় ফোরকানিয়া মাদরাসার শিক্ষক মোজাম্মেল হকের বিরুদ্ধে বাঁশখালী থানায় মামলা করেন। ওই মামলায় মো. মোজাম্মেল হককে গ্রেফতার করা হয়।

তিনি আরও জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার বিষয়টি স্বীকার করেন মোজাম্মেল। পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তাকে বাঁশখালী থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

এএসপি মাহমুদুল হাসান মামুন বলেন, চাম্বল এলাকার ওই ফোরকানিয়া মাদরাসার মক্তবে পড়াতেন মোজাম্মেল হক। প্রতিদিন ভোর ৬টা থেকে ৮টা পর্যন্ত চলত পাঠদান। এরপর অন্যদের ছুটি দিয়ে মসজিদ পরিষ্কারের নামে রেখে দিতেন তার পছন্দের কোনো এক ছাত্রকে। তারপর তাকে ধর্ষণ করতেন।

মামলা দায়েরের পর তিনি পালিয়ে যান। কিন্তু র‌্যাব-৭ গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারে যে, আসামি মোজাম্মেল হক কুমিল্লা জেলার দেবীদ্বার থানাধীন পাওন্নারপুল এলাকায় তার আত্মীয়ের বাসায় আশ্রয় নিয়েছেন। রাতে অভিযান চালিয়ে সেখান থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

ঢাকা, ০২ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।