বরিশালে মাদরাসা শিক্ষার্থীকে পুড়ি‌য়ে হত্যার চেষ্টা


Published: 2019-12-01 20:48:01 BdST, Updated: 2019-12-07 05:22:30 BdST

লাইভ প্রতিবেদকঃ বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলায় এক মাদরাসা শিক্ষার্থীর শরীরে কেরসিন ঢেলে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। গুরুতর অবস্থায় তাকে শেরে-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনায় দোষিদের গ্রেফতার ও উপযুক্ত শাস্তির দাবী করেছেন ওই ছাত্রের স্বজনরা।

এদিকে তদন্ত শেষে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানিয়েছেন বিভাগীয় পুলিশ কমিশনার।

গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার চাঁদপাশা এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। আহত ছাত্রের নাম মো. মাহফুজ (১৩)। সে ওই এলাকার কাশেম ঢালীর ছেলে এবং স্থানীয় বকশীর চর দাখিল মাদরাসার ৭ম শ্রেণিতে পড়ুয়া ছাত্র।

ছাত্রের স্বজনরা বলেন, ‘মোবাইল কেনার বাবদ ৬০০ টাকা নিয়ে বিবাদের জের ধরে এই ঘটনা ঘটে। এই ঘটনার আগে মাহফুজ স্থানীয় একটি দোকানে বসে ছিলো। ওইখান থেকেই তার বন্ধু বাপ্পী মাহফুজকে ডেকে একটি নির্জন স্থানে নিয়ে যায়। সেখানে আগে থেকেই অবস্থান করছিল তাদের আরেক বন্ধু তামিম।

কথাবার্তার এক পর্যায়ে মাহফুজের গায়ে কেরসিন ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেয় তারা। তার চিৎকার শুনে স্থানীয় লোকজন পরিবারের লোকদের কাছে খবর জানায়। তারা সেখানে পৌঁছানোর আগেই মাহফুজের শরীরের একাংশ পুড়ে যায়। পরে তাকে গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করে স্বজনরা। এই ঘটনায় অভিযুক্তদের গ্রেফতার এবং সেই সাথে কঠোর শাস্তির দাবি জানিয়েছেন স্বজনরা।’

এই প্রসঙ্গে শেরে-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন এন্ড প্লাস্টিক সার্জারী বিভাগের প্রধান ডা: এম এ আজাদ বলেন, ‘ছাত্রের শরীরের প্রায় ২৩ ভাগ পুড়ে গেছে। সেই সাথে পুড়েছে তার শ্বাসনালীর অংশ বিশেষ। এ অবস্থায় এখন তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানোর পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এর পরপরই স্বজনরা তাকে ঢাকায় নিয়ে যায়।’

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো: শাহাবু‌দ্দিন খান জানান, ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে তদন্ত করে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

ঢাকা, ০১ ডিসেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।