চার ছাত্রীকে যৌন হয়রানি, বড় হুজুর বললেন এটা ষড়যন্ত্র!


Published: 2019-07-27 19:29:29 BdST, Updated: 2019-09-16 02:44:18 BdST

নারায়ণগঞ্জ লাইভঃ চার ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে ওই মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা বড় হুজুর মোস্তাফিজুর রহমানকে আটক করেছে র‌্যাব-১১ এর একটি টিম। এই অভিযোগ অনেক আগে থেকেই চলে আসছিলো। নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় একটি মাদরাসায় শনিবার দুপুর ২টার দিকে ফতুল্লার ভূইগড় আবাসিক এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়। বড় হুজুর বললেন এটা ষড়যন্ত্র। আমার বিরোধীরা এসব করেছে।

র‌্যাব-১১ এর কোম্পানি কমান্ডার মেজর তালুকদার নাজমুস সাকিব বলেন, দুপুরে ফতুল্লার ভূইগড়ে আবাসিকে দারুল হুদা মহিলা মাদরাসায় অভিযান চালিয়ে মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা মোস্তাফিজুর রহমানকে আটক করা হয়েছে। ছয় বছর আগে তিনি এ মাদরাসা প্রতিষ্ঠা করেন। তিনি এলাকায় বড় হুজুর হিসেবে পরিচিত।

মেজর তালুকদার নাজমুস সাকিব আরও বলেন, কয়েকজন অভিভাবকের কাছ থেকে অভিযোগ পেয়ে তাকে আটক করা হয়েছে। ইতোমধ্যে চারজন ছাত্রীর বিষয়ে আমরা নিশ্চিত হয়েছি যারা যৌন হয়রানির শিকার হয়েছে।

তাছাড়া বড় হুজুরের মোবাইলেও বেশ কিছু রেকর্ড পাওয়া গেছে। এছাড়া তিনি প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদেও চার ছাত্রীকে যৌন হয়রানির বিষয়টি স্বীকার করেছেন। সাকিব জানান, যৌন হয়রানির শিকার প্রত্যেকের বয়স ১০ থেকে ১৭ বছর।

র‌্যাব জানায়, মোস্তাফিজুর রহমান ওই মাদরাসাতেই পরিবার নিয়ে বসবাস করেন। তার বাড়ি নেত্রকোনা জেলাতে। তার দুই মেয়ে ও এক ছেলে রয়েছে। তবে আটক মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, এলাকার আবু তাহের ও মাহাবুবুর রহমানসহ আরও কয়েকজন মিলে পরিকল্পনা করে ষড়যন্ত্র করে আমার বিরুদ্ধে এসব নাটক সাজিয়েছে।

আমার বিরুদ্ধে করা অভিযোগগুলো সত্য নয়। পুরো বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে। তদন্ত সম্পন্ন হলেই জানা যাবে আসল রহস্য।

ঢাকা, ২৭ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।