স্কুল-কলেজে মেধার বিস্ফোরণ, যবিপ্রবির ভর্তিতে ফেল!


Published: 2017-11-12 01:28:42 BdST, Updated: 2017-11-19 05:35:18 BdST

যবিপ্রবি লাইভ : যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় ফল বিপর্যয় হয়েছে। স্কুল ও কলেজ লেভেলে এসএসসি ও এইচএসসিতে মেধার বিস্ফোরণ ঘটালেও যবিপ্রবিতে ভর্তি পরীক্ষা দিতে এসে ফেলের খাতায় নাম লিখিয়েছেন অধিকাংশ ভর্তিচ্ছু। ফল বিশ্লেষণে দেখা গেছে ভর্তি পরীক্ষায় অর্ধেকেরও বেশি শিক্ষার্থী পাশ করতে পারেননি।

৬ টি ইউনিটের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ফল বিপর্যয় হয়েছে ‘এ’ ইউনিটে। ওই ইউনিটে পাশের হার প্রায় ১৩ শতাংশ। মানে ৮৭ ভাগ ভর্তিচ্ছুই ফেল করেছেন। এছাড়া ‘ই’ ইউনিটে পাশের হার ১৮ শতাংশ। ‘সি’ ইউনিটে পাশের হার ২২ শতাংশ, ‘এফ’ ইউনিটে ২৯ শতাংশ ভর্তিচ্ছু পাশ করেছে।

তবে তুলনামূলকভাবে বাকি দুই ইউনিটে পাশের হার ভালো। এর মধ্যে ‘বি’ ইউনিটে পাশের হার ৫০ শতাংশ ‘ডি’ ইউনিটে পাশের হার ৫২ শতাংশ।

এসএসসি ও এইচএসসিতে জিপিএ-৫ সহ ভালো ফলের অধিকারী শিক্ষার্থীদের এভাবে গণহারে ফেলের খাতায় নাম লেখানোয় মান নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

শনিবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. মো: আনোয়ার হোসেন আনুষ্ঠানিকভাবে এই ফলাফল প্রকাশ করেন।

জানা গেছে, যবিপ্রবিতে এ বছর সাতটি অনুষদের ৭৯৫টি আসনের বিপরীতে ছয়টি ইউনিটে ৩৮ হাজার ২৩৯ জন পরীক্ষার্থী আবেদন করেন। এরমধ্যে ২৯ হাজার ৩৪ জন ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেন। এবারের ভর্তি পরীক্ষায় উপস্থিতি ছিল মোট আবেদনকারীদের মধ্যে প্রায় ৭৬ শতাংশ।

‘এ’ ইউনিটে ২৫০টি আসনের বিপরীতে ১২ হাজার ৯৫৪ জন ভর্তি পরীক্ষার্থী আবেদন করেন। তাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ৯২৭০ জন ভর্তি পরীক্ষার্থী। তাদের মধ্যে পাশ করেছেন ১২০৯ জন শিক্ষার্থী। ‘এ’ ইউনিটের পাশের হার প্রায় ১৩ শতাংশ।

‘বি’ ইউনিটে ১৬০টি আসনের বিপরীতে ১১ হাজার ৯৫৭ জন ভর্তি পরীক্ষার্থী আবেদন করেন। তাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ৯৪০১ জন পরীক্ষার্থী। পাশ করেছেন ৪৭৪৫ জন। ‘বি’ ইউনিটের পাশের হার প্রায় ৫০ শতাংশ।

‘সি’ ইউনিটে ২০৫টি আসনের বিপরীতে ৮ হাজার ৩৪০ জন ভর্তি পরীক্ষার্থী আবেদন করেন। তাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ৭০৬০ জন। পাশ করেছেন ১৫২৮ জন। ‘সি’ ইউনিটের পাশের হার প্রায় ২২ শতাংশ।

‘ই’ ইউনিটে ৪০টি আসনের বিপরীতে ৬৭৬ জন আবেদন করেন। আর ৪৯০ জন ভর্তি পরীক্ষার্থী অংশ নেন। তাদের মধ্যে পাশ করেছেন ৮৭ জন। ‘ই’ ইউনিটের পাশের হার প্রায় ১৮ শতাংশ। আগামী ১৬ নভেম্বর, ২০১৭ খি. বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে তাদের ব্যবহারিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

‘ডি’ ইউনিটে ৪০টি আসনের বিপরীতে ১ হাজার ৭৬৮ জন ভর্তি পরীক্ষার্থী আবেদন করেন। এরমধ্যে উপস্থিত ছিলেন ৯৫৭ জন পরীক্ষার্থী। তাদের মধ্যে পাশ করেছেন ৪৯৫ জন। ‘ডি’ ইউনিটের পাশের হার প্রায় ৫২ শতাংশ।

‘এফ’ ইউনিটে ১০০টি আসনের বিপরীতে ২ হাজার ৫৪২ জন ভর্তি পরীক্ষার্থী আবেদন করেন। এরমধ্যে উপস্থিত ছিলেন ১ হাজার ৮৫৬ জন শিক্ষার্থী। তাদের মধ্যে পাশ করেছেন ৫৪০ জন। মানে পাশের হার ২৯ শতাংশ। এরমধ্যে বাণিজ্য বিভাগ থেকে ৫০০ জন, বিজ্ঞান বিভাগ থেকে ২৩ জন এবং মানবিক থেকে ১৭ জন।

‘এফ’ ইউনিটের পাশের হার ২৯ শতাংশ। বিস্তারিত ফলাফল জানতে লগ-ইন করুন www.just.edu.bd তে।


ঢাকা, ১২ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।