ইবিতে সাংবাদিকদের মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ


Published: 2019-09-19 18:31:04 BdST, Updated: 2019-10-14 07:25:41 BdST

ইবি লাইভঃ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) শিক্ষার্থী ও ক্যাম্পাস সাংবাদিক ফাতেমা তুজ জিনিয়াকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাময়িক বহিষ্কারের মাধ্যমে হয়রানির ঘটনায় জড়িতদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করেছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত সাংবাদিকরা। বাংলাদেশ ক্যাম্পাস জার্নালিস্ট'স ফেডারেশনের আহ্বানে বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১২টায় "মৃত্যুঞ্জয়ী মুজিবের" পাদদেশে বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস ক্লাব ও সাংবাদিক সমিতি এ মানববন্ধন করে।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস ক্লাবের সাংস্কৃতিক সম্পাদক রুমি নোমানের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফেরদাউসুর রহমান সোহাগ, সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত তিমির, সহ সভাপতি আসিফ খান, সাংবাদিক সমিতির সভাপতি ইমরান শুভ্র, সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির জীবন, সহ সভাপতি মাহফুজ মিশু, বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক জি কে সাদিক প্রমুখ। এসময় সরকার মাসুম, এ আর রাশেদ, তারিক বিন নজরুলসহ প্রেসক্লাব ও সাংবাদিক সমিতির সকল সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, জিনিয়াকে হয়রানির ঘটনায় জড়িতদের অনতিবিলম্বে শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। একই সাথে সাংবাদিক শামস জেবিনের উপর হামলাকারীদেরও বিচার করতে হবে। সকল ক্যাম্পাসে স্বাধীন সাংবাদিকতার পরিবেশ নিশ্চিত করারও দাবি জানান সাংবাদিক নেতারা। এসময় নৈতিকতাহীন ও দূর্নীতির সাথে জড়িত বশেমুরবিপ্রবির ভিসির পদত্যাগ দাবি করে বক্তারা বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্মস্থানে এরকম একজন চরম দূর্নীতিগ্রস্থ, স্বৈরতান্ত্রিক মনোভাপন্ন, নৈতিকতাহীন ও অভদ্র, ভাষাজ্ঞাহীন ভিসি দায়িত্ব পালন করতে পারে না। তাকে অনতিবিলম্বে পদত্যাগ করতে হবে। নইলে সকল বিশ্ববিদ্যালয়ে তার বিরুদ্ধে আন্দোলন গড়ে তোলার হুশিয়ারি দেন বক্তারা।"

উল্লেখ্য, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাসের জেরে গত ১১ সেপ্টেম্বর জিনিয়াকে সাময়িক বহিষ্কার করে বশেমুরবিপ্রবি প্রশাসন। পরে বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ড. নূরউদ্দিন আহমেদ স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে ফাতেমা তুজ জিনিয়ার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হয়।

ঢাকা, ১৯ সেপ্টেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।