উপাচার্যের সংবাদ সম্মেলন বয়কট ইবি প্রেসক্লাবের


Published: 2019-09-12 21:10:34 BdST, Updated: 2019-09-16 00:52:20 BdST

ইবি প্রতিনিধি: অনিবন্ধিত-ভূইফোঁড় পত্রিকা ও অনলাইন পোর্টালের সাংবাদিকদের নিমন্ত্রণ করায় উপাচার্যের সংবাদ সম্মেলন বয়কট করেছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) প্রেস ক্লাব। বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টায় প্রশাসন ভবনের তৃতীয় তলায় উপাচার্যের সভাকক্ষে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। প্রগতিশীলতা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী সংগঠন প্রেস ক্লাব যথাসময়ে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত হয়। কিন্তু পরক্ষণেই ভূইফোঁড় ও অনিবন্ধিত বিভিন্ন পত্রিকা ও অনলাইন পোর্টালের বেশ কয়েকজন সাংবাদিক সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত হয়। এ ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে একযোগে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে প্রেস ক্লাবের সকল সাংবাদিক।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস ক্লাবের সহ-সভাপতি আসিফ খান বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস ক্লাবের তিন দশকের ইতিহাস ঐতিহ্য রয়েছে। এখনকার সাবেক সদস্যরা দেশে ও বিদেশে বিভিন্ন উচ্চ আসনে আসীন। কিন্তু সেই ঐতিহ্যবাহী সংগঠন বাদ দিয়ে প্রশাসন গলি পথে হাটা শুরু করেছে। যা ভবিষ্যতের জন্য অশনিসংকেত।’

সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত তিমির বলেন, ‘মূল ধারার সংবাদপত্রে কাজ করে একজন ভূয়া সাংবাদিকের সাথে এক কাতারে বসে সংবাদ সম্মেলনে অংশগ্রহণ আমরা শোভনীয় মনে করি না। তাই সংবাদ সম্মেলন বয়কট করেছি। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন যদি মনে করে দেশের সকল জাতীয় গণমাধ্যম বাদ দিয়ে অনিবন্ধিত অনলাইন পোর্টাল নিয়ে সন্তুষ্ট থাকবেন, সেটা একান্তই তাদের ব্যক্তিগত। তবে এসব বন্ধ না হলে ভবিষ্যতে প্রেস ক্লাব কঠোর কর্মসূচী ঘোষণা করবে।

সভাপতি ফেরদাউসুর রহমান সোহাগ বলেন, স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ভূইফোঁড় সাংবাদিক ও সংবাদ পত্রের লাগাম টেনে ধরতে একটি আইন করেছিলেন। পরে ২০১৫ সালে তারই তনয়া মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনলাইন নিউজ পোর্টাল নিবন্ধন এবং অন্যান্য প্রসঙ্গে একটি খসড়া নীতিমালা প্রনয়ন করেন। সুতরাং স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে ইন্টারনেটের এ যুগে ভূইফোঁড় অনলাইন পত্রিকা ও ভূয়া সাংবাদিকদের দৌরাত্ম ঠেকাতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। সেখানে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ভূয়া সাংবাদিকদের সকল আনুকূল্যতা দিয়ে দৃশ্যত সরকারের বিরুদ্ধেই অবস্থান নিয়েছেন।’

উল্লেখ্য, আগামি ১৪ ও ১৫ সেপ্টেম্বর সামাজিক অস্থিরতা, শান্তি ও বিকাশ শীর্ষক একটি আন্তর্জাতিক সম্মেলন উপলক্ষ্যে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে প্রশাসন। বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজকল্যাণ বিভাগ এবং ইন্টারন্যাশনাল কনসোর্টিয়াম ফর সোশ্যাল ডেভেলপমেন্ট, এশিয়া প্যাসিফিক শাখা (আইসিএসডিএপি) যৌথ উদ্যোগে এ সম্মেলনের আয়োজন করেছে বলে জানা গেছে।

 

ঢাকা, ১২ সেপ্টেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।