শোকের মাসে ইবি ছাত্রলীগের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া


Published: 2018-08-08 22:04:20 BdST, Updated: 2018-10-24 11:46:25 BdST

ইবি লাইভ: ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) শোকের মাসে ছাত্রলীগের একই গ্রুপের কর্মীদের মধ্যে মারামারি ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। বুধবার বিকাল ৬টায় জিয়া মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।

ফার্মেসি বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী মিরান এবং ফলিত খাদ্য ও পুষ্টি বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী আদর ও তাদের দলবলের মধ্যে এ মারামারির ঘটনা ঘটে। তাদের উভয় দলই শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা হালিম গ্রুপের কর্মী।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, পূর্বের নারী ঘটিত বিবাদ থেকে জিয়া হলের মিরান তার দলবল নিয়ে সাদ্দাম হলের আদরকে মারতে সাদ্দাম হলে যায়। তারা সাদ্দাম হলে আসলে আদর তার বন্ধুদের নিয়ে ধাওয়া দেয়। জিয়ার মোড় এলাকায় আসলে আশেপাশে থাকা ছাত্রলীগ নেতারা তাদেরকে শান্ত করে।

এ সময় একই গ্রুপের সিনিয়র ছাত্রলীগ নেতা মামুন, জুবায়ের, নিশান ও রিজওয়ান, নীল তাদের নিয়ে জিয়ার মোড়ে বসে। তার সেখানে বিষয়টি সেখানে সমাধান করে। বিষয়টি মিরান ও তার দল-বলের মন:পুত না হওয়ায় সাদ্দাম হলে যাওয়ার পথে আদরের উপর আবার হামলা করে। এসময় ওই দুই গ্রুপের কর্মীদের মাঝে মারামারি ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

পরে শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা হালিম সেখানে উপস্থিত হলে সিনিয়র নেতা কর্মীদের সহযোগীতায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আসে।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী আদর ক্যাম্পাস লাইভকে বলেন, আমাদেও বন্ধুদের মধ্যে সামান্য ভুল বোঝাবুঝি হয়েছিল। পরে বড় ভাইয়েরা মিমাংসা করে দিয়েছে।

শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা হালিম বলেন ‘ক্যাম্পাস লাইভকে বলেন, মারামারির ঘটনা শোনামাত্র আমি সেখানে উপস্থিত হই। তাদের ভূল বোঝাবুঝির বিষয়টি সেখানেই সমাধান করে দেই। রাতে তাদেরকে নিয়ে বসে পরবর্তী ব্যবস্থ গ্রহন করবো।

 


ঢাকা, ০৮ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।