পরীক্ষা শেষে ডেটিংয়ে গিয়ে ছাত্রীর সর্বনাশ, ৩ বন্ধুর ভিডিও!


Published: 2018-02-15 02:04:00 BdST, Updated: 2018-02-25 00:12:27 BdST

চুয়াডাঙ্গা লাইভ : জীবননগরে এসএসসি পরীক্ষা শেষে ডেটিংয়ে গিয়ে ছাত্রীর সর্বনাশ হয়েছে। বন্ধুদের নিয়ে ওই ছাত্রীকে গণধর্ষণ করেছে প্রেমিক। এসময় ওই দৃশ্য মোবাইলে ধারণ করা হয়েছে। ওই ভিডিও প্রকাশের হুমকি দিয়ে ছাত্রীর কাছ থেকে স্বর্ণালংকারও হাতিয়ে নিয়েছে কথিত প্রেমিক। এনিয়ে উপজেলায় তোলপাড় শুরু হয়েছে।

জানা গেছে, জীবননগর উপজেলার বাঁকা ইউনিয়নের আলীপুর গ্রামের রাখালশাহ পাড়ার মৃত আব্দুস সালামের ছেলে দোকান কর্মচারী আরিফুল ইসলাম আরিফ এসএসসি পরীক্ষার্থীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। রোববার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি পরীক্ষা দিয়ে তরুণীটি বাড়ি ফেরে। ওই দিন বিকালে প্রেমিক আরিফ ডেটিংয়ের কথা বলে ওই ছাত্রীকে ডেকে নিয়ে য়ায়। সন্ধ্যা পর্যন্ত ঘোরাঘুরি করার পর তারা খয়েরহুদা গ্রামের মাঠপাড়ায় যায়।

সেখানে ভুট্টাক্ষেতে পূর্ব থেকেই তার দুই বন্ধু একই গ্রামের আজিল হোসেনের ছেলে জুয়েল ও আব্দুর রশিদ দেওয়ানের ছেলে সিরাজুল অপেক্ষা করছিল। এসময় আরিফ ওই ছাত্রীকে নিয়ে ভুট্টা ক্ষেতে পৌঁছুলে জুয়েল ও সিরাজুল তাকে ধর্ষণ করে এবং ধর্ষণের দৃশ্য মোবাইলে ভিডিও করে রাখে। পরে প্রতারক প্রেমিক আরিফ তাকে ধর্ষণ করে। ধর্ষণ শেষে স্বর্ণের গয়না কেড়ে নিয়ে অসুস্থ অবস্থায় তাকে ফেলে রেখে মোটরসাইকেলযোগে পালিয়ে যায় তারা। যাওয়ার সময় এ ঘটনার কথা ফাঁস করলে ছবি ও ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দেয়া হয়।

ঘটনার দুই দিন পর স্বর্ণের গহণা ফেরত দেয়ার কথা বলে আবারও ওই ছাত্রীকে উপজেলার লক্ষীপুর ব্রিজের কাছে দেখা করতে বলে আরিফ। মঙ্গলবার বিকেলে ওই ছাত্রী তার পরিবারের সহায়তায় ওই ব্রিজের ওপর গেলে এলাকাবাসী ধর্ষক আরিফকে আটক করে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে।

জীবননগর থানার ওসি মাহমুদুর রহমান বলেন, এ ব্যাপারে মঙ্গলবার রাতে তিন জনের বিরুদ্ধে থানাতে ধর্ষণের মামলা দায়ের করা হয়েছে। আটক আরিফকে বুধবার চুয়াডাঙ্গা আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে বলে উল্লেখ করেন তনি।

ঢাকা, ১৫ ফেব্রুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।